লাইফ স্টাইল

বাংলাদেশ স্পেশাল রেসিপিঃ চিতল মাছের কোফতা কারি

স্বাদবদল করতে বানান বাংলাদেশের বিখ্যাত চিতল মাছের কোফতা কারি। জেনে নিন রেসিপি। 

 

Bengal Live ডেস্কঃ বাংলাদেশের কিছু বিখ্যাত রান্না নিয়ে আমরা হাজির হয়েছি আপনাদের মধ্যে। এই পুরো সপ্তাহ আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করে নেব বাংলাদেশের কিছু বিখ্যাত রেসিপি। আজ আমরা যে রান্নাটি নিয়ে আলোচনা করবো সেটি হলো চিতল মাছের কোফতা কারি। এটি বাংলাদেশের একটি বিখ্যাত খাবার চলুন তবে দেখে নেওয়া যাক।

বাংলাদেশ স্পেশাল রেসিপিঃ দই রুই

উপকরণঃ-

ক) চিতল মাছের পিঠের অংশ বাটা – ২ কাপ,
খ) ভাত বাটা – ১ কাপ,
গ) আদা বাটা – ১ চা-চামচ,
ঘ) রসুন বাটা – ১ চা-চামচ,
ঙ) শুকনো লঙ্কা বাটা – ১ চা-চামচ,
চ) ধনে বাটা – ১ চা-চামচ,
ছ) জিরা বাটা – ১ চা-চামচ,
জ) কাঁচা লঙ্কা বাটা – ১ চা-চামচ,
ঝ) গরম মসলা বাটা – ১ চা-চামচ,
ঞ) লবণ – ২ চা-চামচ,
ট) ফিশ সস – ২ চা-চামচ,
ঠ) ধনেপাতা কুচি – ২ টেবিল চামচ
ড) তেল ভাজার জন্য।

বাংলাদেশ স্পেশাল রেসিপিঃ ট্যাংরা টম্যাটো কারি

এবার দেখে নিই কিকরে আমরা চিতল মাছের কোফতা কারি তৈরি করবো।

প্রণালিঃ-
প্রথমে চিতল মাছের পিঠের অংশ ভালো করে ধুয়ে চামড়া ও কাঁটা ছাড়িয়ে মাছ বেটে নিন। মাছ বাটার সময় যেসব কাঁটা হাতে লাগবে, সেগুলো বেছে নিন। তারপর লবণ ও ভাত বাটা মাছের সঙ্গে মিশিয়ে আরও একবার বাটুন।

এবার একটি পাত্রে মাছ ও ভাত বাটা নিয়ে তাতে তেল বাদে অন্য সব উপকরণ একত্রে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবং ২০ থেকে ২৫টি ভাগ করুন। হাতের তালুতে সামান্য তেল মেখে নিয়ে গোল গোল কোফতা তৈরি করুন। তারপর সেগুলোকে ডুবো তেলে ভেজে তেল ছেঁকে উঠিয়ে রাখুন।

আপনাদের সুবিধার্থে বলে রাখি, বড় ফলি মাছ দিয়েও একইভাবে কোফতা তৈরি করা যায়। চিতল বা ফলি মাছের চামড়ায় মুড়েও ভেজে স্লাইস করে কেটে পরিবেশন করা যায়।

তালের মরসুমে বানান ঠান্ডা ঠান্ডা তালের শরবত। জানুন রেসিপি।

কোফতা কারি তৈরীর পদ্ধতি:

উপকরণ: 
পেঁয়াজ বাটা – আধ কাপ,
আদা বাটা – ২ চা-চামচ,
রসুন বাটা – ১ চা-চামচ,
পেঁয়াজ কুচি – আধ কাপ,
ধনে গুঁড়ো – দেড় টেবিল চামচ,
গরম মশলা বাটা – আধ টেবিল চামচ,
ফেটানো টকদই – পৌনে এক কাপ,
ঘি – আধ কাপ,
লবণ স্বাদমতো,
চিনি – ৪ চা-চামচ,
লেবুর খোসা কুচি – ১ টেবিল চামচ
কাঁচা লঙ্কা – ৮টি।

এবার ভারতে চাষ বিশ্বের সবচেয়ে দামি সবজির

প্রণালি:

প্রথমে, কড়াইয়ে ঘি গরম করে তেজপাতার ফোড়ন দিয়ে পেঁয়াজ কুচি হালকা বাদামি করে ভেজে নিন। তারপর ফেটানো টকদইয়ে লেবুর খোসা কুচি ও কাঁচা লঙ্কা বাদ দিয়ে বাকি সব উপকরণ ভালো করে মিশিয়ে মশলার মিশ্রণ তৈরি করে নিন। এটি কড়াইয়ে দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিন। তারপর কোফতা ও কাঁচা লঙ্কা দিয়ে কিছুক্ষণ কষিয়ে নিয়ে এক কাপ পানি দিয়ে নেড়ে আঁচ কমিয়ে ঢেকে দিন। মাখা মাখা হলে ওপর থেকে লেবুর খোঁসা কুচি দিয়ে নেড়ে ১০ মিনিট দমে রাখুন। এরপর পরিবেশন করুন গরম গরম চিতল মাছের কোফতা কারি।

আমাদের সঙ্গে থাকুন এরপর আমরা নিয়ে আসবো আরো নতুন কোনো বাংলাদেশের জিভে জল আনা রেসিপি।

ক্যান্সার প্রতিরোধে সক্রিয় ভূমিকা পেঁয়াজের, জানুন পেঁয়াজের গুনাবলী ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

Leave a Reply

Back to top button