জাতীয়

ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়া মিম সংরক্ষণ করবে বিশ্বের প্রথম মিম মিউজিয়াম

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া মিম ও মজাদার বিষয়বস্তু নিয়ে হংকংয়ে গড়ে উঠেছে আস্ত এক মিউজিয়াম। বিশ্বের প্রথম মিম মিউজিয়াম এটিই।

Bengal Live ডেস্কঃ  এতদিন বিশেষ বিশেষ বস্তু বা ব্যক্তির প্রতিকৃতি স্থান পেতো এবং সংরক্ষণ করা হোতো সংগ্রহশালা বা মিউজিয়ামে। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া মিম ও মজাদার বিষয়বস্তু নিয়ে এবার দর্শকদের বিনোদনের জন্য গড়ে উঠেছে আস্ত একটি মিউজিয়ামই। এই অভিনব মিউজিয়ামটি গড়ে উঠেছে হংকংয়ে। এটিই বিশ্বের প্রথম মিম মিউজিয়াম।

হংকংয়ের কে১১ আর্ট মলে অবস্থিত এই মিউজিয়ামটিতে ইন্টারনেটে সারা বিশ্বের ভাইরাল হয়ে যাওয়া হাস্যকর ভিডিয়ো ও ছবি সংরক্ষিত করা হয়েছে। এর ফলে দর্শকরা ইন্টারনেটের সেরা বিনোদনের সুযোগ-সহ মিমের ইতিহাস সম্বন্ধে জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন। উপরন্তু, বিশ্বের অভিনব এই মিউজিয়ামে রয়েছে অবাধ প্রবেশের অনুমতি, মিউজিয়াম পরিদর্শনের জন্য ধার্য করা হয়নি কোনো প্রবেশমূল্য । জানা গিয়েছে, এই মিউজিয়ামে প্রদর্শিত করা হয়েছে ১০০টিরও বেশি মিম। সেগুলিকে বিভক্ত করা হয়েছে মোট সাতটি থিমে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো ট্রোল ফেস, ডজ, ডিস্ট্রাক্টেড বয়ফ্রেন্ড, ডিজাস্টার গার্লের মতো ইন্টারনেটে র বহুল পরিচিত মিমগুলি।

এখনই খুলছে না রাজ্যের স্কুল,কলেজ, কবে খুলতে পারে? জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

অভিনব এই মিউজিয়ামে ইতিমধ্যেই জায়গা করে নিয়েছেন পাকিস্তানের হতাশ ভক্ত সারিম আখতার। যিনি ২০১৯ সালে আইসিসি ওয়ার্ল্ড কাপে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৪১ রানে পাকিস্তানের হারের পর হতাশায় ডুবে গিয়েও তাঁর মজাদার পোজের জন্য ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে মিমের বিষয়বস্তু হয়েছিলেন। সারিম টুইটারে উচ্ছাস প্রকাশ করে জানান, তিনি হংকংয়ের মিম মিউজিয়ামে জায়গা করে নিয়েছেন। তিনি এও জানিয়েছেন তাঁর বোন প্রথম সেখানে তাঁর ছবি খুজে পান।

কে১১-এর আর্ট মলের ওয়েবসাইটে প্রদর্শনী প্রোফাইল অনুযায়ী, ইন্টারনেটের আধুনিক সংস্কৃতিকে তুলে ধরাই এই মিউজিয়ামের লক্ষ্য। রসিকতা বা জোকসের সংখ্যাই বেশি এই মিমগুলির মধ্যে । বর্তমানে কীভাবে আমরা নানা প্রসঙ্গ নিয়ে ব্যাঙ্গ করি, বিভিন্ন উৎসব অনুষ্ঠান সেলিব্রেট করি, সর্বোপরি সোশ্যাল মিডিয়ায় কীভাবে আমাদের জীবনের ভালো মন্দে জড়িয়ে গেছে তারই মূর্ত প্রতীক হল এই মিউজিয়াম। আশা করা যায় ভারতের কোনো মিমও খুব শীঘ্রই জায়গা করে নেবে বিশ্বের প্রথম মিম মিউজিয়ামে।

পূজার ছুটিতে পর্যটকরা আসবেন তো! আশঙ্কা পর্যটন ব্যবসায়ীদের

Leave a Reply

Back to top button