নজরে জেলা

জেলায় সুস্থ ২০০ করোনা রোগী, হেমতাবাদে স্বাস্থ্য শিবির, চোপড়ায় আক্রান্ত ব্যবসায়ী

Join our WhatsApp group

উত্তর দিনাজপুরে করোনা মুক্ত ২০০ রোগী। রায়গঞ্জে বিজেপির পঞ্চায়েতে বিক্ষোভ। চোপড়ায় ব্যবসায়ীর উপরে হামলা ও হেমতাবাদে স্বাস্থ্য শিবির নিয়ে এক নজরে জেলা।

Bengal Live রায়গঞ্জঃ ডবল সেঞ্চুরি। করোনাকে পরাজিত করে উত্তর দিনাজপুর জেলায় সুস্থ ২০০ জন। সোমবার রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের করোনা বুলেটিন প্রকাশিত হওয়ার পর এই তথ্য জানা গিয়েছে।
এদিকে করোনা আক্রান্ত অবস্থায় কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২৭ জন। জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২২৭।

Bengal Live রায়গঞ্জঃ বিজেপি পরিচালিত গ্রামপঞ্চায়েত প্রধান ও পঞ্চায়েত সদস্যরা টাকার বিনিময়ে অপেক্ষাকৃত কম বয়সীদের ” তফসিলি বন্ধু ” ও ” জয় জোহার ” প্রকল্পের টাকা পাইয়ে দিচ্ছেন, এই অভিযোগ তুলে বীরঘই গ্রামপঞ্চায়েতের বাসিন্দারা সোমবার রায়গঞ্জ বিডিও অফিসে ধর্ণা অবস্থান করে বিক্ষোভ দেখালেন। ইতিমধ্যেই রায়গঞ্জ ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে এলাকার ৩৪ জন উপভোক্তার বিরুদ্ধে ভুয়ো নথি পেশ করার অভিযোগে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। এই ঘটনা নিয়ে রায়গঞ্জ বিডিও অফিসে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এদিন। তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত রায়গঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি মানস ঘোষ বলেন, প্রকৃত উপভোক্তারা সকলেই এই দুই প্রকল্পের টাকা পাবেন। বঞ্চিত গ্রামবাসীদের বিডিও অফিসে সরাসরি এসে আবেদন করার পরামর্শ দেন তিনি।

Bengal Live রায়গঞ্জঃ রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ও হেমতাবাদ ব্লক হাসপাতালের সাত জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা বিনামূল্যে সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য পরীক্ষার ব্যবস্থা করল উত্তর দিনাজপুর জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেস। সোমবার জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে হেমতাবাদ বাসস্ট্যান্ডে এই ফ্রি মেডিক্যাল চেকআপ ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়। দলীয় পতাকা উত্তোলন করে স্বাস্থ্য শিবিরের উদ্বোধন করেন জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি গৌতম পাল। উপস্থিত ছিলেন রায়গঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ছিতা টুডু, সহ সভাপতি মানস ঘোষ, হেমতাবাদ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শেখর রায় প্রমুখ। হেমতাবাদ ব্লকের প্রায় ছয় শতাধিক দুস্থ গরীব মানুষ এদিনের স্বাস্থ্য শিবিরে তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করান বলে যুব তৃণমূল সূত্রে জানা গেছে।

Bengal Live চোপড়াঃ এক ব্যবসায়ীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করার অভিযোগে চাঞ্চল্য চোপড়ার ঝাড়বাড়ি এলাকায়৷ আক্রান্ত ব্যবসায়ী মঞ্জুর আলমকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে অভিযুক্ত সফিক আলমকে হাতেনাতে ধরে ফেলে স্থানীয় বাসিন্দারা বেধরক মারধর করে বলে অভিযোগ। জখম অবস্থায় অভিযুক্তকে চোপড়া দলুয়া স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করেছে পুলিশ। কী কারণে মঞ্জুর আলমের উপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে চড়াও হয়েছিল সফিল আলম তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

Related News

Leave a Reply

Back to top button