ফটো গ্যালারি

ওয়েব ডেস্কঃ স্ত্রীর বিবাহ বিচ্ছেদের মামলায় হেরে সেই সময় স্ত্রীর পাশে থাকা শালীকে ধর্ষণ করে খুনের অভিযোগ উঠলো জামাইবাবুর বিরুদ্ধে। রায়গঞ্জ থানার মাড়াইকুরা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার ঘটনা।  অভিযোগ এলাকার নাবালিকা মেয়েটিকে ১১ দিন থেকে পাওয়া যাচ্ছিল না। এই ঘটিনায় রায়গঞ্জ থানায় মিসিং ডাইরী করে ওই নাবালিকার পরিবার, পাশাপাশি মেয়েটির খোজ ও শুরু করে বাড়ির লোক।

গতকাল দুপুরে ইসলামপুর থানার ধনতলা এলাকার ভুট্টাক্ষেত এর পাশ থেকে উদ্ধার হয় একটি অজ্ঞাত পরিচয় যুবতীর মেয়ে রক্তাত দেহ। বৃহস্পতিবার সেই খবর পেয়ে ইসলামপুর গিয়ে নাবালিকার দেহ  সনাক্ত করে বাড়ির লোক। ওই নাবালিকার দিদি ও আত্মীয়দের অভিযোগ মেয়েটির দিদি তার স্বামীকে ডিভোর্স দেওয়ার পর। পাশাপাশি লাগাতার খুনের হুমকি দিত জামাইবাবু মাইরুল হক, যেভাবেই হোক আমি আমার শালীকে খতম করবই।

জাবেদার মৃতদেহ আসার পর এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Related News

Leave a Reply

Back to top button