পোর্টজিন

“ডাক্তার” লিখেছেন আভা সরকার মন্ডল

ডাক্তার-জাতির বিরুদ্ধে সব উঠে-পড়ে লাগে জোরে
উপকারের বিনিময়ে তাঁদের জন্যই কবর খোঁড়ে।

বিদ্ধ করে বিনা-কারন হুল ফুটানো বাক্য বানে
ডাক্তার মানেই গন শত্রু মেনে নিয়ে মনেপ্রাণে ।

পয়সা কামাক অন্য লোকে অসৎ পথে যত খুশি
সৎ পথে ধন কামালে ও তাঁদের বেলায় নাকে ঘুষি।

ডাক্তার জাতির জন্য মনে বিষাক্ত বিষ কানায় কানায়
নিজে খাবে ভালো-মন্দ কু-নজর ডাক্তারের খানায় ।

একের দোষে সব ডাক্তার, তাঁদের চোখে সমান দোষী
গুষ্টির তুষ্টি করেন তাঁরা নির্বিচারে ছিটিয়ে মসী ।

নিজের বেলায় আঁটি-সাঁটি, সাজিয়ে ডেরা ঢপের চপে
ডাক্তার নামটি নিত্য তাঁরা অসম্মানের মালায় জপে।

উঠতে বসতে সর্ব কাজে ডাক্তারের দোষ ষোল আনা
মনে সাধটি পোষেন তবু –ডাক্তার হবে নিজের ছানা !

রোগীর স্বার্থে সারা জীবন নিজের ঘরের সাথেই আড়ি
ডাক্তারের বিরুদ্ধেই তবু নালিশ সবার কাড়ি কাড়ি।।

খোদার হাতেই মরণ-বাঁচন ডাক্তার তো নিমিত্ত মাত্র —
জেনে বুঝেও বুদ্ধিনাশা চুলকায় তবু নিজের গাত্র ।।

রোগীর জন্য হাসিমুখে আরাম-আয়েশ দেন তাড়িয়ে
সবটুকু সুখ খোঁজেন তিনি রোগীর দেহের রোগ সারিয়ে ।।

সেবাটিকে ধর্ম মেনেই ডাক্তার করেন শপথ গ্রহণ
অন্যের ভুলের চাপে পড়ে সইতে হয় যে তাকেই দহন।

Related News

Leave a Reply

Back to top button