রায়গঞ্জ

করোনা জয়ী রায়গঞ্জের ৮২-এর প্রৌঢ়া

করোনা জয় করে ফিরলেন ৮২-এর প্রৌঢ়া। আতঙ্ক নয়, সঠিক সময়ে চিকিৎসা হলে করোনাকে জয় করা সম্ভব, বার্তা প্রৌঢ়ার।

করোনা আক্রান্ত হোমের ২৩ শিশু কিশোর

Bengal Live রায়গঞ্জঃ করোনা জয় করে বাড়ি ফিরলেন ৮২ বছরের প্রৌঢ়া। রবিবার করোনা মুক্ত হয়ে রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি ফেরেন রায়গঞ্জের অশোকপল্লীর বাসিন্দা মায়া রাণী পাল। ১৩ সদস্যের পরিবারের অভিভাবক মায়া রাণী পাল সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরায় খুশি তাঁর পরিজনেরা। করোনা জয়ী লেখা কেক কেটে আনন্দে মেতে উঠলেন মায়া রাণী পালের নাতনীরা।

জানা গেছে, রায়গঞ্জের অশোক পল্লীর পাল পাড়ার বাসিন্দা মায়া রাণী পালের ১৩ সদস্যের পরিবার। তারমধ্যে সাতজনই করোনায় আক্রান্ত হন। অন্যান্যরা বাড়িতে হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা করালেও অক্সিজেনের মাত্রা কমে যাওয়ার কারণে রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হতে হয় মায়া রাণী পালকে। আক্রান্ত সাত সদস্যের মধ্যে রয়েছেন মায়া রাণী পালের ছেলে, বউমা ও তাঁর ১৪ বছরের নাতনীও।

চলন্ত গাড়ি থেকে তরুণীকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ, চাঞ্চল্য রায়গঞ্জে

প্রৌঢ়ার নাতনী ঝুমকি পাল জানিয়েছেন, গত ১৩ মে পরিবারের এক সদস্যের মধ্যে করোনা উপসর্গ দেখা যায়। এরপর কোভিড টেস্ট করানো হলে তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ আসে৷ এরপর ধাপেধাপে পরিবারের বাকি সদস্যদের টেস্ট করানো হলে ১৩ সদস্যের মধ্যে ৭ জনের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর সামনে আসে। বাকিদের তেমন কোনও সমস্যা দেখা না দিলেও মায়া রাণী পালের অক্সিজেনের মাত্রা কমতে শুরু করে। এরপর চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে গত ২৪ মে রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। এদিকে পরিবারের বাকি সদস্যদের চিকিৎসা চলে হোম আইসোলেশনে থেকেই। রবিবার পরিবারের প্রবীণ সদস্যা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে এসেছেন। রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীদের ধন্যবাদ জানাই।

সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে আসায় খুশি মায়া রাণী পাল। ৮২ বছর বয়সে করোনাকে পরাজিত করতে পেরে বেজায় খুশি তিনি। মায়া রাণী পাল বলেন, চিকিৎসক, নার্স সহ অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীদের ঐকান্তিক প্রয়াসে আমি সুস্থ হয়ে পরিবারের সদস্যদের কাছে ফিরে এসেছি। শহরের বাসিন্দাদের উদ্দেশ্যে তাঁর বার্তা, আতঙ্ক নয়, সঠিক সময়ে চিকিৎসা হলে করোনাকে পরাজিত করা সম্ভব।

রায়গঞ্জ পুরসভার কাউন্সিলরকে মারধর করার অভিযোগ

এদিকে পরিবারের সাত সদস্য করোনা মুক্ত হওয়ায় কেক কেটে আনন্দে মেতে ওঠেন পাল পরিবার। করোনা জয়ী লেখা কেক কাটেন মায়া রাণী পাল।

Related News

Leave a Reply

Back to top button