রায়গঞ্জ

বাল্য বিবাহ, নারী পাচার রুখতে স্কুলে সচেতনতা শিবির জেলা পুলিশের

বাল্য বিবাহ, নারী পাচার রুখতে স্কুলে সচেতনতা শিবির জেলা পুলিশের

Bengal Live রায়গঞ্জঃ বাল্য বিবাহ, নারী পাচার সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে গার্লস স্কুলে সচেতনতা মূলক প্রচার শুরু করল উত্তর দিনাজপুর জেলা পুলিশ। রবিবার কালিয়াগঞ্জের মিলনময়ী বালিকা বিদ্যালয়ে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে এই বিষয়গুলি নিয়ে সচেতনতা শিবিরের আয়োজন করা হয়। জেলা পুলিশ সুপার সুমিত কুমার ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কালিয়াগঞ্জ থানার আইসি শ্রীমন্ত বন্দ্যোপাধ্যায়, কালিয়াগঞ্জ পুরসভার চেয়ারম্যান কার্তিক পাল, জেলা চাইল্ড লাইন আধিকারিক বিপুল দাস এবং স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা লাবনী চ্যাটার্জি।

জেলা পুলিশ সুপার সুমিত কুমার বলেন, এখন মেয়েরা অনেকটাই সাহসী হয়েছে। তারা এখন নিজেরাই বাল্যবিবাহ আটকে দিয়ে ব্যাগ হাতে বিদ্যালয়ের পথে ছুটছে। এদেরকে মনে সাহস জোগাতে এবং আরও বেশি বেশি করে সচেতন করে তুলতে জেলা পুলিশ প্রশাসন থেকে এই পদক্ষেপ গুলি নেওয়া হচ্ছে। তার সুফলও মিলছে বলে জানান তিনি।

সম্প্রতি টোল ফ্রী নম্বরে অভিযোগ জানিয়ে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ ব্লকের বোচাডাঙা গ্রামপঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দা তিন নাবালিকা
নিজেদের বিয়ে নিজেরাই রুখে দিয়েছে। এখনই বিয়ে নয়, উচ্চ শিক্ষাই তাদের মূল লক্ষ্য। এমন বার্তা দিয়েই পরিবারের চাপকে উপেক্ষা করে নিজেদের জীবনের লক্ষ্যকে বেছে নিয়েছে তারা। তিন কন্যার এই সাহসী গল্পই এখন মুখে মুখে ঘুরছে উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জবাসীর মধ্যে। রবিবার সচেতনতার অনুষ্ঠানের মাঝে এই তিন কন্যাকেও সম্বর্ধনা প্রদান করেন জেলা পুলিশ সুপার সুমিত কুমার।

Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button