রায়গঞ্জ

ফোনের কল রেকর্ড দেখান, শঙ্করকে পালটা চ্যালেঞ্জ মন্ত্রী দেবশ্রীর

Join our WhatsApp group

উত্তর দিনাজপুর বিজেপির প্রাক্তন জেলা সভাপতি শঙ্কর চক্রবর্তী অভিযোগ করেন, রায়গঞ্জের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী তাঁকে ফোনে হুমকি দিয়েছেন। অভিযোগ শুনে দেবশ্রী চৌধুরীর পালটা চ্যালেঞ্জ, আগে তিনি ফোনের অডিও কল রেকর্ড প্রকাশ্যে নিয়ে আসুন। তারপর কোনও জবাব দেব।

Bengal Live রায়গঞ্জঃ অভিযোগ প্রমাণ করতে শঙ্কর চক্রবর্তীকে পালটা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী। মন্ত্রীর চ্যালেঞ্জ, ফোনের অডিও কল রেকর্ড আগে প্রকাশ্যে নিয়ে আসুন তিনি। দেবশ্রী বলেন, “একজন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে যখন দলেরই কেউ এমন অভিযোগ তোলেন তখন ইন্টেনশনটা বুঝতে হবে।”

ADVERTISEMENT

বুধবার সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিক পোস্ট করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ তুলে রাজনৈতিক মহলে শোরগোল ফেলে দেন উত্তর দিনাজপুর বিজেপির প্রাক্তন জেলা সভাপতি শঙ্কর চক্রবর্তী। শঙ্কর চক্রবর্তীর অভিযোগ, কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু কল্যাণ দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী তাঁকে ফোন করে হুমকি দিয়েছেন। কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনে পরাজয়ের দায় তাঁর উপর চাপিয়েছেন মন্ত্রী। শঙ্কর বাবু বলেন, “মন্ত্রী আমাকে ফোন করে হুমকি দিয়ে বলেছেন, মিডিয়াকে কিনে আমি নাকি কালিয়াগঞ্জে বিজেপির বিরুদ্ধে প্রচার করেছি। বিজেপি প্রার্থীকে হারানোর জন্য আমিই নাকি দায়ী৷ এ জন্য মন্ত্রী আমাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন। কিন্তু আমি কালিয়াগঞ্জে উপনির্বাচনের কোনও দায়িত্বেই ছিলাম না। মন্ত্রীর এই অভিযোগ সর্বৈব মিথ্যা। কিন্তু মন্ত্রীর হুমকির জন্য আমি আতঙ্কে আছি।”

কালিয়াগঞ্জ বিধানসভা উপনির্বাচনে বিজেপির পরাজয়ের দায় পালটা মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরীর উপর চাপিয়েছেন বিজেপির প্রাক্তন জেলা সভাপতি শঙ্কর চক্রবর্তী। শঙ্করবাবু বলেন, “লোকসভা নির্বাচনে জয়ের পর মন্ত্রী হয়েছেন দেবশ্রী চৌধুরী। কিন্তু কোনও কাজ করেননি। কিছু ঠিকাদার দলীয় কর্মীকে নিয়ে দলের জেলা সংগঠনের রাশ নিজের হাতে রাখতে চাইছেন তিনি। রাধিকাপুর-কলকাতা দিনের ট্রেনের দাবি এখনও তিনি বাস্তবায়িত করতে পারেননি। মন্ত্রীর ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ ও লাক্সারি লাইফ স্টাইলের জন্যই কালিয়াগঞ্জে পরাজিত হতে হয়েছে বিজেপিকে।”

শঙ্কর বাবুর এই অভিযোগের পর মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, “কে কী বলল, আমি তা নিয়ে কোনও মন্তব্য করব না। আমি একজন মন্রী। সবকিছুতে আমার প্রতিক্রিয়া দেওয়া শোভা পায় না। আমি শুধু বলব, তিনি যে অভিযোগটা করছেন তার তথ্য প্রমাণ হিসেবে ফোনের কল রেকর্ডটা আগে তাঁর কাছ থেকে চেয়ে নিন।”

কাজ না করা ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরনের অভিযোগ প্রসঙ্গে দেবশ্রীর বক্তব্য, “আমার মন্ত্রীত্ব পাওয়া মাত্র ৬ মাস হয়েছে। আর আমি মানুষের সঙ্গে কীভাবে আচরণ করি সেটা আমার সঙ্গে যারা মেশে তারা জানে, আর জনগণ জানে। তবে একজন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে দলেরই কেউ যখন এরকম অভিযোগ তোলেন বা কোনও দায় চাপান, তখন আপনাদের বুঝতে হবে এর পেছনে ইন্টেনশনটা কী।”

আরও পড়ুনঃ বিজেপির জেলা নেতাকে ফোনে হুমকি মন্ত্রী দেবশ্রীর, উপনির্বাচনে হারের জের

Tags

Related News

Back to top button
Close