রায়গঞ্জ

ভ্যাকসিনের লাইনে চরম বিশৃঙ্খলা, উত্তেজনা রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে

মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার এই কেন্দ্র থেকে ১২৬৮ জনকে কোভিড ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছিল। এদিনও সম পরিমাণ মানুষকেই ভ্যাকসিন দেওয়ার পরিকল্পনা থাকলেও মাঝ পথেই তা বন্ধ হয়ে যায়।

 

 

Bengal Live রায়গঞ্জঃ ভ্যাকসিনের লাইনে চরম বিশৃঙ্খলার অভিযোগকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ালো রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ৷ অভিযোগ, ভ্যাকসিনের লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা কিছু মানুষ চড়াও হয় মেডিক্যাল কলেজে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজের সাথে যুক্ত থাকা কর্মীদের উপর। পালটা মারধর করার অভিযোগও উঠেছে নাগরিকদের পক্ষ থেকে। এরপরেই এদিনের মতন ভ্যাকসিন দেওয়া বন্ধ করে দেওয়া হয়। এদিকে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা সাধারণ নাগরিকদের অভিযোগ, টোকেন ছাড়াও বেশ কিছু মানুষকে এদিন ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছিল। লাইন রক্ষণাবেক্ষণের জন্য কেউ ছিল না।

চা বানিয়ে খাওয়াবেন স্যোশাল মিডিয়ার ভাইরাল চা-কাকু

জানা গেছে, প্রতিদিনের মতন বুধবারও সকাল থেকে শুরু হয়েছিল রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে কোভিড ভ্যাকসিন কর্মসূচি। লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা নাগরিকদের হাতে সিরিয়াল নম্বর তুলে দেওয়া হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অভিযোগ, সিরিয়াল নম্বর উপেক্ষা করে কিছু মানুষ ঘরে ঢুকে পড়ার চেষ্টা করে। কর্মীদের মারধর করা হয় বলেও অভিযোগ কর্তৃপক্ষের। এরপরেই ভ্যাকসিন দেওয়া বন্ধ রেখে রায়গঞ্জ থানার পুলিশকে খবর দেন তাঁর। পরে পুলিশ পৌঁছে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন।

মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের কোভিড টিকাকরণের দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক সব্যসাচী মুখোপাধ্যায় বলেন, সিরিয়াল নম্বর উপেক্ষা করে কিছু মানুষ এদিন ভ্যাকসিন কেন্দ্রে ঢোকার চেষ্টা করে। আমাদের কয়েকজন কর্মীকেও মারধর করা হয়। কোলাপ্সেবেল গেটও ভেঙে দেওয়া হয়৷ আমরা সকলেই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতে শুরু করি। এরপরেই রায়গঞ্জ থানার পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। ভ্যাকসিন এদিনের মতন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে৷

মৃত কংগ্রেস কর্মীর বাড়িতে রায়গঞ্জের বিধায়ক, তদন্তে নামল পুলিশ কুকুর

এদিকে ভ্যাকসিনের লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা সবিতা শীল জানিয়েছেন, ভোর চারটা থেকে আমরা লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলাম। কিন্তু এখন বলা হচ্ছে আর ভ্যাকসিন দেওয়া হবেনা। শুনলাম লাইনের সামনের দিকে দাঁড়িয়ে থাকা কিছু মানুষের সাথে গন্ডগোল হয়েছে। কয়েকজনকে মারাও হয়েছে। সেই কারণেই এদিনের মতন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ভ্যাকসিন।

লাইনে দাঁড়ানো আরও এক নাগরিক মেধা মুখার্জী বলেন, সকাল থেকে আমরা লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলাম। সিরিয়াল নম্বরও দেওয়া হয়েছে আমাদের। তবে এরপরেও বেশ কিছু মানু্ষ সিরিয়াল নম্বর ছাড়া ভেতরে ঢুকে গেছিল। ভ্যাকসিনও দেওয়া হয়েছে ওদের। এরপর অনেকেই ঢুকে গেছিল ভেতরে। শুনেছি লাঠি দিয়ে মারা হয়েছে তাদের। এরপরেই আজ আর ভ্যাকসিন দেওয়া হবে না বলে জানিয়ে দেওয়া হয়।

Related News

Leave a Reply

Back to top button