রায়গঞ্জ

বাড়ছে জল, রায়গঞ্জে খোলা হলো ত্রান শিবির, ঘরছাড়া প্রায় ১০০০

Join our WhatsApp group

একটানা বৃষ্টি ও কুলিক নদীর জল ক্রমশ বেড়ে যাওয়ার কারণে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে রায়গঞ্জে৷ ঘর ছাড়া প্রায় ১০০০ পরিবারকে সরানো হচ্ছে ত্রান শিবিরে।

Bengal Live রায়গঞ্জঃ কুলিক নদীর জল বৃদ্ধি ও একটানা বৃষ্টির জেরে রায়গঞ্জে ঘর ছাড়া প্রায় ১০০০ পরিবার৷ রায়গঞ্জ পুরসভার পক্ষ থেকে শহরের দুই স্কুলে খোলা হলো ত্রান শিবির৷ শক্তিনগর, কুমারডাঙি ও রমেন্দ্রপল্লী এলাকার কিছু অংশ জলমগ্ন। ত্রান শিবিরে পানীয় জল, বিদ্যুতের ব্যবস্থা করছে পুরসভা। এদিকে কুলিকের বাঁধে, রেল লাইনের উপরে অস্থায়ী তাবু টানিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন আরও কিছু পরিবার।

ADVERTISEMENT

বিগত কয়েকদিন থেকেই কুলিক নদীর জল ক্রমশ বেড়েই চলেছে। ঘর ছেড়ে ইতিমধ্যেই বহু মানুষ কুলিকের বাঁধে আশ্রয় নিয়েছেন। সেখানেই গবাদি পশুদের সাথে নিয়ে কোনওরকমে দিন কাটাচ্ছেন তাঁরা। এদিকে বুধবার দিন থেকে রায়গঞ্জ পুরসভার আট নম্বর ওয়ার্ডের শক্তিনগর এলাকায় জল ঢুকতে শুরু করেছে। এদিন সকালের একটানা বৃষ্টিতে জলের পরিমাণ আরও বেড়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন সাধারণ বাসিন্দারা। ৮ নম্বর ওয়ার্ড সূত্রে জানা গেছে, এলাকার প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই জল ঢুকে গিয়েছে। আসবাব ও জরুরি সামগ্রী নিয়ে একে একে এলাকা ছেড়ে ত্রান শিবিরের দিকে রওনা হচ্ছেন এলাকার বাসিন্দারা।

এদিকে জলস্তর বাড়তে থাকার কারণে তৎপরতার সাথে শহরের মোহনবাটি হাইস্কুল ও রামকৃষ্ণ স্কুলে ত্রান শিবির খুলেছে রায়গঞ্জ পুরসভা। ঘরছাড়া দুর্গতদের থাকার ব্যবস্থা করা হচ্ছে শহরের এই দুই স্কুলে। সেখানে পানীয় জল সহ অন্যান্য পরিষেবা দেওয়ার জন্য বন্দবস্ত শুরু করেছে পুরসভা। ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর বরুন ব্যানার্জী জানিয়েছেন, তাঁর ওয়ার্ডের প্রায় সকল বাসিন্দাকেই অন্যত্র সরিয়ে নিতে হচ্ছে। রমেন্দ্রপল্লী ও কুমারডাঙি এলাকার কিছু বাসিন্দাকে সরানো হচ্ছে বলে জানা গেছে।

Tags

Related News

Leave a Reply

Back to top button
Close