রায়গঞ্জ

স্বাধীনতা দিবসের আগে প্রাক্তন সেনা আধিকারিককে সুস্থ করে ঘরে ফেরালেন রায়গঞ্জের বাপি বিশ্বাস

স্বাধীনতা দিবসের আগে প্রাক্তন সেনা আধিকারিকের জীবন বাঁচিয়ে ফের একবার মানবিকতার পরিচয় দিলেন রায়গঞ্জের বাপি বিশ্বাস।

Bengal Live রায়গঞ্জঃ স্বাধীনতা দিবসের প্রাক মুহূর্তে প্রাক্তন সেনা আধিকারিককে সুস্থ করে বাড়ি ফেরালেন রায়গঞ্জের স্বাস্থ্য কর্মী বাপি বিশ্বাস। রায়গঞ্জের বাসিন্দা প্রাক্তন ব্রিগেডিয়ার অসিত রঞ্জন দত্তকে সুস্থ করে বাড়ি ফেরালেন তিনি৷ করোনা উপসর্গ ছাড়াও একাধিক সমস্যা দেখা দিয়েছিল ৮৬ বছরের অসিত বাবুর৷ সেই খবর পাওয়া মাত্রই অসিত বাবুর চিকিৎসার কাজে লেগে পড়েন বাপি। মাত্র কয়েকদিনের সেবাতেই সুস্থ করে তুলেছেন প্রাক্তন ব্রিগেডিয়ার অসিত রঞ্জন দত্তকে। করোনা কাল থেকেই রোগী পরিষেবায় একাধিক উদাহরণ সৃষ্টি করেছিলেন মিক্কিমেঘার নার্স বাপি বিশ্বাস৷ এবার প্রাক্তন সেনা আধিকারিকের জীবন বাঁচিয়ে আবারও মানবিকতার বার্তা ছড়িয়ে দিলেন তিনি।

ছকে বাঁধা জীবনে বানিয়ে ফেলুন যোগ ব্যায়ামের রুটিন। জেনে নিন কোনটা কখন করবেন আর কোনটা করবেন না

জানা গেছে, প্রাক্তন সেনা আধিকারিক অসিত রঞ্জন দত্ত রায়গঞ্জের বিধাননগরের বাসিন্দা। বাড়িতে একাই থাকেন তিনি৷ তাঁর ছেলে গৌতম দত্ত কর্মসূত্রে শহরের বাইরে থাকেন৷ এদিকে রায়গঞ্জে তাঁর দেখভালের জন্য দুইজন কর্মী নিয়োগ করা রয়েছে। বাপি বিশ্বাস জানিয়েছেন, করোনার উপসর্গ নিয়ে গত ২৩ জুলাই মিক্কিমেঘায় ভর্তি হয়েছিলেন অসিত বাবু। করোনার উপসর্গ থাকলেও তিনি কোভিড নেগেটিভ ছিলেন। কয়েকদিনের চিকিৎসার পর ৩০ জুলাই তাঁকে সুস্থ করে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এদিকে গত ৯ অগস্ট হঠাৎ করেই অসিত বাবু অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁর রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ কমতে থাকার খবর পেয়ে অসিত বাবুর চিকিৎসা শুরু করা হয়৷ অবশেষে বৃহস্পতিবার পুরোপুরি সুস্থ হয়ে তিনি বাড়ি ফিরে গেছেন৷ স্বাধীনতা দিবসের প্রাক মুহূর্তে প্রাক্তন সেনা কর্মীকে সুস্থ করে তুলতে পেরে আমরা সকলেই খুশি।

বর্ষায় নষ্ট হচ্ছে রান্নাঘরের মশলাপাতি! জেনে নিন মশলা ভালো রাখার উপায়

এই বিষয়ে অসিত বাবুর ছেলে গৌতম দত্তের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, কর্মসূত্রে আমি শহরের বাইরে থাকি। বাড়িতে বাবাকে দেখভালের জন্য দুইজন রয়েছেন। পাশাপাশি প্রতিবেশী ও আত্মীয়স্বজনরাও রয়েছেন। তবে বাপি বিশ্বাস যেই ভাবে পরিষেবা দিয়ে বাবাকে সুস্থ করে তুলেছেন তাঁর তুলনা হয় না। রায়গঞ্জে ফিরে প্রথমেই বাপি বাবুর সাথে দেখা করে তাঁকে ধন্যবাদ জানাবো।

Related News

Leave a Reply

Back to top button