রায়গঞ্জ

হেমতাবাদের বিধায়ক আত্মহত্যা করলে খুনের মামলা রুজু করলো কেন পুলিশ ? প্রশ্ন দিলীপের

Join our WhatsApp group

হেমতাবাদে বিধায়কের মৃত্যুর ইস্যু নিয়ে নাছোড় বিজেপি। উত্তর দিনাজপুরে নিজেদের জমি শক্ত করার কৌশল ? দলের তরফে হেমতাবাদে বসানো হবে প্রয়াত দেবেন্দ্রনাথ রায়ের মূর্তি।

ADVERTISEMENT

Bengal Live রায়গঞ্জঃ হেমতাবাদের বিজেপি বিধায়ক দেবেন্দ্রনাথ রায় আত্মহত্যা করলে খুনের মামলা রুজু করল কেন পুলিশ ? সোমবার হেমতাবাদের বিধায়ক দেবেন্দ্রনাথ রায়ের বাড়িতে এসে এমন প্রশ্নই তুললেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দিলীপ ঘোষের দাবি, চক্রান্ত করে বিজেপি বিধায়ককে হত্যা করা হয়েছে। পরে সুইসাইড নোট পকেটে ঢুকিয়ে পুলিশ ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে। আর্থিক লেনদেনের কথা বলে বিধায়ককে বদনাম করার চেষ্টা চলছে। এখন বিভিন্ন ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে সেই টাকা উদ্ধার হচ্ছে।

সোমবার বিন্দোলের বালিয়া এলাকার বাড়িতে বিধায়কের পরিবারের সাথে দেখা করতে আসেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, রাজ্য সম্পাদক সায়ন্তন বসু, দক্ষিণ দিনাজপুরের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার সহ বিজেপির অন্যান্য রাজ্য নেতৃত্ব। বিধায়কের পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেওয়ার পাশাপাশি এদিন দেবেন মোড়ে বিধায়কের মূর্তির ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করেন দিলীপ ঘোষ। এরপর বিন্দোলের কয়লাডাঙি এলাকায় বিধায়কের স্মৃতিতে স্মরণসভায় বক্তব্য রাখেন তিনি।

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, পরস্পর বিরোধী কাজ করছে পুলিশ। যদি বিধায়ক আত্মহত্যাই করে থাকেন তাহলে ৩০২ এর মামলা রুজু করল কেন পুলিশ। আমরা আশা করছি সুপ্রিমকোর্ট সিবিআই তদন্তের রায় দেবে। একমাত্র কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এই ঘটনার তদন্ত করলে পরেই আসল ঘটনা উঠে আসবে। স্থানীয় বাসিন্দারা সকলেই জানে, কারা এই খুনের ঘটনার সাথে যুক্ত। তদন্ত হলে পুলিশ সহ তৃণমূলের নেতা ও দুষ্কৃতীরা একেএকে ধরা পড়বে, জেলে যাবে। দিলীপ ঘোষ আরও বলেন, বিধায়ককে আর্থিক বদনাম দেওয়ার চক্রান্ত করা হচ্ছে। কিন্তু বিভিন্ন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সেই টাকার হদিশ মিলছে। যারা টাকা প্রতারণার সাথে যুক্ত তারাও এই খুনের ঘটনার সাথে যুক্ত থাকতে পারেন বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

Related News

Leave a Reply

Back to top button