রায়গঞ্জ

মায়ের হাতে শিশু সন্তান খুন ! অভিযোগ ঘিরে চাঞ্চল্য রায়গঞ্জে

একমাস তিন দিন বয়সের এক শিশুর রহস্য মৃত্যুকে ঘিরে চাঞ্চল্য রায়গঞ্জের কর্ণজোড়া কালীবাড়ি এলাকায়। শিশুটিকে খুন করার অভিযোগ উঠল মা ও মাসীর বিরুদ্ধে।

Bengal Live রায়গঞ্জঃ একমাস তিন দিন বয়সের এক শিশুর রহস্য মৃত্যুকে ঘিরে চাঞ্চল্য রায়গঞ্জের কর্ণজোড়া কালীবাড়ি এলাকায়। শিশুটিকে খুন করার অভিযোগ উঠল মা ও মাসীর বিরুদ্ধে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে কর্ণজোড়া ফাঁড়ির পুলিশ।শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে৷ স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযুক্ত দুইজনকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কর্ণজোড়া কালীবাড়ির বাসিন্দা রতন বর্মন ও তার স্ত্রী ঊর্মিলার বছর তিনেক আগে বিয়ে হয়। এক মাস কয়েকদিন বয়সের একটি পুত্র সন্তানও রয়েছে তাদের। দিনকয়েক আগে স্বামী রতন বর্মনের সাথে ঝগড়া করে শিশু সন্তানকে নিয়ে ঊর্মিলা বামনগ্রামে তার বাপের বাড়ি চলে যান। শুক্রবার সকালে ঊর্মিলা তার পুত্র সন্তান ও দিদি কল্পনা-কে নিয়ে রতনের বাড়ি ফিরে আসেন।

রতন বর্মনের দাবি, বাড়িতে মৃত শিশুকে রেখে পালিয়ে যাচ্ছিলেন ঊর্মিলা ও তার দিদি। স্থানীয় লোকজন ওদের ধরে নিয়ে আসে। পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। রতনের অভিযোগ, সন্তানকে খুন করেছেন ঊর্মিলা।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান প্রশান্ত দাস। তিনি খবর দেন কর্ণজোড়া পুলিশ ফাঁড়িতে। পুলিশ এলে স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযুক্ত মা ঊর্মিলা বর্মন ও মাসী কল্পনা বর্মনকে পুলিশের হাতে তুলে দেন। প্রশান্ত দাস বলেন, মৃত অবস্থায় শিশুটিকে ফেলে রেখে নাকি মা ও মাসী পালিয়ে যাচ্ছিলেন। স্থানীয় বাসিন্দারা ওদের ধরে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে। শিশুটিকে খুন করা হয়েছে বলে দাবি করেন প্রশান্ত বাবু।

এদিকে অভিযোগ অস্বীকার করেন ঊর্মিলা বর্মন। তিনি বলেন, মা হয়ে সন্তানকে খুন করবো? আমার উপর রাগ করে স্বামী এই অভিযোগ তুলেছে। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে কর্ণজোড়া ফাঁড়ির পুলিশ।

Tags

Related News

Leave a Reply

Back to top button
Close