রায়গঞ্জ

বোনকে ইভটিজিং উত্তর দিনাজপুরে, প্রতিবাদী দাদাকে মার ইভটিজারদের

বোনকে ইভটিজিং উত্তর দিনাজপুরে, প্রতিবাদী দাদাকে মার ইভটিজারদের

Bengal Live রায়গঞ্জঃ বোনের ইভিটিজারদের হাতে প্রহৃত দাদা সহ তিন। ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় বেধরক মারধর ও বাড়ি ভাঙচুর করার অভিযোগ উত্তর দিনাজপুর জেলার করণদিঘি ব্লকে। ঘটনায় আহত চারজন চিকিৎসাধীন রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। অভিযোগ দায়ের হয়েছে করণদিঘি থানায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

অভিযোগ, করণদিঘি থানার কুড়িগাঁও গ্রামের বাসিন্দা দুলাল হকের বোনকে পাশের গ্রাম মোহনপুরের চার যুবক অশ্লীল কথা বলে উত্যক্ত করত বেশ কিছুদিন থেকে। শুক্রবার সন্ধ্যায় ফের ওই চার যুবক দুলাল বাবুর বোনকে অশ্লীল কথা বললে তিনি প্রতিবাদ করেন। অভিযোগ, এরপর বেধরক মারধর করা হয় তাদের। বাড়িও ভাঙচুর করার অভিযোগ উঠেছে ওই চার যুবকের বিরুদ্ধে।

এই বিষয়ে দুলাল হকের অভিযোগ, শুক্রবার সন্ধ্যায় বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে বৌদির সঙ্গে বোন গল্প করছিল। সেই সময় দুটি মোটর বাইকে চারজন যুবক বোনের উদ্দেশ্যে কটূক্তি করে। প্রতিবাদ করায় প্রথমে বেধরক মারধর করে চলে যায়। কিছুক্ষণ বাদে ফের কিছু মানুষকে সাথে নিয়ে এসে আমাদের বাড়িতে চড়াও হয়ে বাড়ি ভাঙচুর করে এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যদেরকে মারধর করে ইভটিজাররা।

মারধরের ফলে গুরুতর আহত হয় পরিবারের ৬-৭ জন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। গ্রামবাসীরা আহতদের প্রথমে করণদিঘি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে আসে। তাদের মধ্যে দুলাল হক সহ চারজনকে রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে করণদিঘি থানার পুলিশ। ওই ঘটনায় দুলালের পরিবারের পক্ষ থেকে করণদিঘি থানায় ওই চার যুবকের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। ওই চার যুবকের খোঁজে পুলিশ তল্লাশি চালাচ্ছে।

Tags

Leave a Reply

Back to top button
Close