রায়গঞ্জ

শরত আকাশে কালো মেঘ, বৃষ্টিতে পণ্ড পূজার বাজার, প্রতিমা তৈরির কাজ

শরত আকাশে কালো মেঘ, বৃষ্টিতে পণ্ড পূজার বাজার, প্রতিমা তৈরির কাজ

Bengal Live রায়গঞ্জঃ এক বছরের অপেক্ষা শেষে ফের মা আসছে। চারিদিকে তাই প্রস্তুতিও চলছে জোড় কদমে। কিন্তু কাউন্টডাউন শুরু হলেও মেঘলা আকাশ ও বৃষ্টি চিন্তায় ফেলছে মন্ডপ শিল্পী ও মৃৎ শিল্পীদের। একটানা বৃষ্টি ও মেঘলা আকাশের জেরে থমকে গিয়েছে শিল্পীদের কাজ। ফলে সঠিক সময়ে প্রতিমা ও মন্ডপ তৈরি করা সম্ভব হবে কিনা তা নিয়েই এখন দুশ্চিন্তায় পড়েছেন তাঁরা।

যখন তুলির শেষ টান দেওয়ার সময় হয়ে এসেছে তখনও সম্পন্ন হয়নি রঙের প্রথম প্রলেপ। এখন এমনই চিত্র ধরা পড়ছে কুমোরপাড়ায়। চরম ব্যস্ততার সময়েও আকাশের দিকে তাকিয়ে সময় গুনতে হচ্ছে মৃৎ শিল্পীদের। কুমোড়পাড়ার শিল্পীদের কথায়, মেঘলা আকাশ ও বৃষ্টির কারণে তাঁদের সমস্ত কাজ থমকে গিয়েছে। এখনও সম্পন্ন হয়নি রঙের প্রথম প্রলেপের কাজ। পলিথিন দিয়ে প্রতিমা ঢেকে রাখলেও বৃষ্টির কারণে অনেক প্রতিমাই ভিজে গিয়েছে। ফলে প্রতিমা শুকানোর জন্য গ্যাস লাইটার সহ অন্যান্য উপায় অবলম্বন করতে হচ্ছে তাঁদের। ফলে একদিকে যেমন সঠিক সময়ে মন্ডপে প্রতিমা পৌঁছে দেওয়া নিয়ে চিন্তা বাড়ছে শিল্পীদের তেমনই বাড়তি খরচের বোঝা চাপছে তাঁদের কাঁধে।

বিগত কয়েকদিন থেকে আকাশ ঢেকেছে ঘন কালো মেঘে। বৃষ্টিও চলছে তাল মিলিয়ে। রোদের দেখা মেলেনি। এরই মাঝে শেষ পর্যায়ের প্রস্তুতি সেরে নিতে হচ্ছে সব পক্ষকে। মন্ডপ শিল্পীরা জানাচ্ছেন, সুক্ষ থেকে অতি সুক্ষ কাজ করা সম্ভব হচ্ছে বৃষ্টির কারণে। তাই বেশিরভাগ মন্ডপ সজ্জার কাজ এখনও বাকি রয়েছে অনেকটাই। চুতুর্থি অথবা পঞ্চমির মধ্যে মন্ডপ সজ্জ্বার কাজ শেষ হবে কিনা তা নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করছেন শিল্পীরা।

ক্ষতির মুখে শহরের ব্যবসায়ীরাও। বৃষ্টির কারণে বস্ত্র বিপনি গুলিতে মানুষের দেখা প্রায় মিলছেই না বলে জানিয়েছেন বিক্রাতারা। আবহাওয়া পরিষ্কার না হওয়া পর্যন্ত ব্যবসায় উন্নতি হবে না বলেই মনে করছেন তাঁরা।

এদিকে প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে কাজ থমকে থাকার বিষয়টি নিয়ে পূজা উদোক্তারাও চিন্তায় রয়েছেন। তবে প্রতিমা শিল্পী ও মন্ডপ শিল্পীদের পাশে থাকার বার্তাও দিয়েছেন তাঁরা।

Related News

Leave a Reply

Back to top button