রায়গঞ্জ

দ্বাদশ শ্রেণীর পড়ুয়ার ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার রায়গঞ্জে, খুন নাকি আত্মহত্যা? তদন্তে পুলিশ

সোমবার সন্ধ্যার পর থেকেই নিখোঁজ ছিল ১০নং মাড়াইকুড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের কসবা নেতাজি মোড় এলাকার বাসিন্দা নিলয়। 

 

Bengal Live রায়গঞ্জঃ স্কুল ছাত্রের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য রায়গঞ্জে৷ মঙ্গলবার সকালে বাড়ি থেকে কিছু দূরে একটি জঙ্গলে ওই স্কুল ছাত্রের ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখতে পাওয়া যায়৷ জানা গেছে, মৃত ছাত্রের নাম নিলয় বসু। কৈলাশচন্দ্র রাধারাণী বিদ্যাপীঠের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র ছিল নিলয়। মৃতের পরিবারের অভিযোগ কিশোরকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে কী কারণে খুন? আদৌও কী নিলয়কে খুন করা হয়েছে? নাকি আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে সে? উত্তর খুঁজতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷ ইতিমধ্যেই মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বিকল্প পাঠদান, খোলা আকাশের নীচে চলছে জ্যোতিবাবুর পাঠশালা

জানা গেছে, দিনকয়েক আগে প্রতিবেশী এক শিক্ষকের ল্যাপটপ চুরি যায়। বাড়ি থেকে খোয়া যায় ল্যাপটপ। এরপরই চুরির ঘটনার সাথে যুক্ত থাকতে পারে নিলয় এমন সন্দেহ করে কিশোরের বাড়িতে তল্লাশি চালানো হয় বলে অভিযোগ। তবে নিলয়ের বাড়ি থেকে ল্যাপটপ মেলেনি বলে দাবি মৃতের বাবা মানিক বসুর। তিনি বলেন, স্থানীয় কয়েকজন ও স্কুলেরই কিছু সহপাঠী ও শিক্ষক এসে বাড়িতে তল্লাশি চালায়। ল্যাপটপ না পাওয়া গেলেও ছেলেকেই চুরির ঘটনায় সন্দেহ করা হয়। এরপর গতকাল সন্ধ্যা থেকে নিখোঁজ হয়ে যায় নিলয়। সারারাত ওর কোনও খবর মেলেনি৷ এদিন সকালে বাড়ির পাশের একটি জঙ্গলাকীর্ণ এলাকা থেকে ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। মানিক বসুর দাবি, ছেলেকে হত্যা করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে।

করোনা কেড়েছে কুটির শিল্পের পসরা, পেট চালাতে অন্য পেশায় শিল্পীরা

এদিকে খবর পেয়ে এদিন ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য দেহ পাঠানো হয়েছে। খুন নাকি আত্মহত্যা? দ্বাদশ শ্রেণীর পড়ুয়ার মৃত্যু রহস্য খুঁজতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Related News

Leave a Reply

Back to top button