রায়গঞ্জ

ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত, রায়গঞ্জে আক্রান্ত কাউন্সিলর,পালটা অভিযোগ বিজেপির

ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত রায়গঞ্জে। আক্রান্ত কাউন্সিলর। পালটা অভিযোগ বিজেপির।

 

Bengal Live রায়গঞ্জঃ ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত রায়গঞ্জে৷ এবার তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলরকে মারধর করার অভিযোগ উঠল বিজেপির দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে চরম উত্তেজনা রায়গঞ্জের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে। রায়গঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কাউন্সিলর অনিরুদ্ধ সাহা। এদিকে তৃণমূল কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে পালটা বিজেপি কর্মীদের মারধর করার অভিযোগ আনলেন রায়গঞ্জের বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণ কল্যানী। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক বিজেপি কর্মী বলে দাবি বিজেপি নেতৃত্বের।

রায়গঞ্জ পুরসভা ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অনিরুদ্ধ সাহা অভিযোগ করে বলেন, গত রাতে আমার দাদা ও ওয়ার্ডের আরও এক তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় এলাকার কিছু বিজেপি কর্মী তাঁদের ডাকেন । এরপরেই তাঁদের গায়ে হাত তোলেন। সেই খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে পৌঁছতেই দেখি বড় গন্ডগোল শুরু হয়েছে। বহিরাগতরা বন্দুকের বাট, বাঁশ দিয়ে মারধর শুরু করে। আমার বাবা, মাকেও মারধর করে ওই দুষ্কৃতীরা। পাড়ার মহিলাদেরও মারধর করা হয়। বিজেপি বুঝে গেছে ওদের পায়ের তলার মাটি সরে গিয়েছে সেই কারণেই এই হামলা। রায়গঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনার খবর পেয়ে এলাকায় এসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে। বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণ কল্যানীর বিরুদ্ধেও উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে সরব হয়েছেন কাউন্সিলর অনিরুদ্ধ সাহা।

এদিকে বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণ কল্যানী এদিন পালটা কাউন্সিলর ও তার অনুগামীদের বিরুদ্ধে বিজেপি কর্মীদের মারধর করার অভিযোগ করেছেন। কৃষ্ণ কল্যানী অভিযোগ করে বলেন, ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি কার্যকর্তাদের উপর অত্যাচার করেছেন এলাকার কাউন্সিলর অনিরুদ্ধ সাহা। যাঁদের ভোট নিয়ে নির্বাচনে জিতেছিলেন এখন তাঁদের উপরেই অত্যাচার করছেন তিনি। মহিলাদের উপর অত্যাচার করছে তৃণমূল। পুলিশ তৃণমূলের ক্যাডার হিসেবে কাজ করছে। পুলিশকে বলেছি, অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেপ্তার করা না হলে বড়সড় আন্দোলনে নামা হবে।

Related News

Leave a Reply

Back to top button