রায়গঞ্জ

কেন তৃণমূল ছাড়লেন কার্তিক পাল ? বিজেপিতে যাওয়ার কারণ কি শুধুই উন্নয়ন ?

দল ত্যাগ করার পরেই জেলা ও কালিয়াগঞ্জ ব্লক তৃণমূল নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন কার্তিক পাল। বিধায়কের বিরুদ্ধে কী এত ক্ষোভ? কালিয়াগঞ্জে ফিরেই হাঁড়ি ফাটালেন কার্তিক।

বিজেপিতে যোগ দিতেই কার্তিক পালকে তৃণমূল থেকে বহিষ্কারের ঘোষণা জেলা সভাপতির

Bengal Live রায়গঞ্জঃ শনিবার মেদিনীপুর কলেজ মাঠের সভায় শুভেন্দু অধিকারীর সাথে বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নিয়েছেন কালিয়াগঞ্জ পুরসভার প্রাক্তন পুরপতি কার্তিক পাল। তাঁর তৃণমূল ত্যাগের ঘটনা জানতে পেরেই তড়িঘড়ি দল থেকে বহিষ্কার করার কথা ঘোষণা করেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল। এরপর রবিবার জেলায় ফিরে প্রথমেই নিজের এলাকায় যান কার্তিক পাল। কালিয়াগঞ্জের বিজেপি নেতা-কর্মীরা তাঁকে স্বাগত জানান। সোমবার সকালে বিজেপির জেলা নেতৃত্বের সাথে দেখা করতে রায়গঞ্জে আসেন কার্তিক পাল। জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ীর সাথে দীর্ঘক্ষণ সংগঠন নিয়ে কথাবার্তা বলেন তিনি।

তৃণমূলে ভাঙন উত্তর দিনাজপুরে, বিজেপিতে যোগ দিলেন প্রাক্তন পুরপতি কার্তিক পাল

এরপরেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন কার্তিক পাল। কেন তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন ? এই প্রশ্নের উত্তরে কার্তিক পাল মূলত তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা নেতৃত্বের বিরুদ্ধেই ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন থেকে অসম্মানিত হতে হচ্ছিল। কালিয়াগঞ্জে তৃণমূল কংগ্রেস নামে কিছুই ছিল না। অনেক কষ্ট করে সংগঠন তৈরি করার চেষ্টা করি। লোকসভা ভোটে ১৫৭০০ ভোটে পিছিয়ে থেকে বিধানসভা উপনির্বাচনে ১২১৪ ভোটে জয়ী হন বিধায়ক। তিনি জেতার পর থেকেই তাঁর আগ্রাসী মনোভাব প্রকাশ পায়। আমাকে বিভিন্ন পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়, কাজ করতে বাধা দেওয়া হয়।

শুভেন্দুর হাত ধরে পালাবদল হবে উত্তর দিনাজপুর জেলা পরিষদে? কী বললেন পূর্ণেন্দু দে?

মানুষের জন্য খুব প্রয়োজনীয় কালিয়াগঞ্জ বাস স্ট্যান্ড উদ্বোধন আটকে দেওয়া হয়েছে। পরিবহন মন্ত্রীর থেকে সময় নেওয়ার পরেও তা আটকে দেওয়া হয়৷ ভোটে জেতার আগে বিধায়ক যে সাত দফা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তার একটাও ফলপ্রসূ হয়নি। কালিয়াগঞ্জ হাসপাতালে বেড সংখ্যাও বাড়ানো হয়নি। তাই কালিয়াগঞ্জের উন্নয়নের কথা মাথায় রেখে দল পরিবর্তন করে বিজেপি দলে নাম লিখিয়েছি।

Related News

Leave a Reply

Back to top button