রায়গঞ্জ

কোচবিহারে খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত রায়গঞ্জের মহিলা, ধরা পড়ল ৬ বছর পর

Join our WhatsApp group

কোচবিহারে খুন হয় ৬ বছর আগে। সেই খুনের ঘটনাতেই জড়িত অভিযোগে গ্রেফতার হলেন রায়গঞ্জের এক মহিলা। নাম ভাঁড়িয়ে লুকিয়ে ছিলেন রায়গঞ্জে।

Bengal Live রায়গঞ্জঃ খুনের ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে রায়গঞ্জের চণ্ডীতলার বাসিন্দা এক মহিলাকে গ্রেফতার করে নিয়ে গেল দিনহাটা থানার পুলিশ। অভিযুক্ত মহিলার নাম মঞ্জু সাহা ওরফে পূর্ণিমা সাহা। কোচবিহারের দিনহাটাতে বিষ খাইয়ে এক মহিলাকে খুন করার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

ADVERTISEMENT

রায়গঞ্জ পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সালে দিনহাটায় একটি বাড়িতে পরিচারিকার কাজ করতেন মঞ্জু সাহা। ২০১৪ সালে সেই বাড়িরই দম্পতিকে একদিন খাবারে বিষ মিশিয়ে খুনের চেষ্টা করা হয়। বিষক্রিয়ায় গুরুতর অসুস্থ হন বাড়ির মালিক সুবল চক্রবর্তী ও তাঁর স্ত্রী আরতি চক্রবর্তী। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় দুজনকেই। চিকিৎসার পর বরাত জোরে সুবলবাবু বেঁচে গেলেও তাঁর স্ত্রী আরতি মারা যান। সেদিনের পর থেকেই ওই বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গিয়ে গা ঢাকা দেয় মঞ্জু।

দিনহাটা থানায় এফআইআর দায়ের হলে খুনের মামলা রুজু করে তদন্তে নামে পুলিশ। দীর্ঘদিন ধরে তদন্ত চালানোর পর সম্প্রতি পুলিশ জানতে পারে, মঞ্জু সাহা গা ঢাকা দিয়ে উত্তর দিনাজপুরে রায়গঞ্জ থানার চন্ডীতলায় আশ্রয় নিয়েছে। শুধু তাই নয়, নিজের নাম মঞ্জু সাহা পাল্টে পূর্নিমা সাহা নাম নিয়ে বসবাস করছে। এর পরই দিনহাটা পুলিশের একটি টিম যোগাযোগ করে রায়গঞ্জ থানার পুলিশের সাথে। দুই জেলার পুলিশের যৌথ তৎপরতায় শেষ পর্যন্ত ধরা পড়ে খুনের ঘটনায় জড়িত মঞ্জু ওরফে পূর্ণিমা সাহা। খুনে অভিযুক্ত মঞ্জুকে আশ্রয় দেওয়ার অভিযোগে সরস্বতী ঘোষ নামে আরও এক মহিলাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

Tags

Related News

Leave a Reply

Back to top button
Close