রাজ্য

টাকার বিনিময়ে ভ্যাকসিনের কুপন বিলির অভিযোগ, উত্তেজনা রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজে

রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের ভ্যাকসিন কেন্দ্রের সামনে কর্তব্যরত এসআই পদমর্যাদার এক পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে ভ্যাকসিনের কুপন বিলি করার অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত পুলিশকর্মী তা অস্বীকার করে বলেন লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা অন্য এক পুলিশকর্মীর ছেলেকে কুপন দিচ্ছিলেন তিনি।

 

Bengal Live রায়গঞ্জঃ  টাকার বিনিময়ে ভ্যাকসিনের কুপন বিলি করছেন এক পুলিশকর্মী । এমনই অভিযোগে উত্তাল হয়ে উঠলো রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল। এদিন মেডিক্যাল কলেজের ভ্যাকসিন কেন্দ্রের সামনে কর্তব্যরত এসআই পদমর্যাদার এক পুলিশ আধিকারিকের বিরুদ্ধে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা কয়েকজনের মধ্যে কুপন বিলি করার সময় টাকা নেওয়ার অভিযোগ ওঠে। টাকা নেওয়ার সময় অন্যান্য ভ্যাক্সিন প্রাপকরা তাঁকে হাতেনাতে ধরে ফেললে ওই পুলিশ আধিকারিক একটি কুপন মুখে ঢুকিয়ে চিবিয়ে খেয়ে ফেলেন বলেও দাবী অভিযোগকারীদের। এবং এরপরই প্রতিবাদীদের উপর ওই পুলিশ আধিকারিক চড়াও হলে দু-পক্ষের বচসায় তীব্র চাঞ্চল্য তৈরি হয় হাসপাতাল চত্বরে ।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় রায়গঞ্জ থানার পুলিশ । বচসার জেরে ভ্যাকসিন প্রদানেও বিঘ্ন ঘটে কিছুক্ষণের জন্য । যদিও তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ওই পুলিশকর্মী। অভিযুক্ত পুলিশ আধিকারিক মিন্টু মন্ডলের দাবি, অন্য এক পুলিশকর্মীর ছেলে ভ্যাকসিনের লাইনে দাঁড়িয়ে ছিল। তিনি তাকেই কুপন দিয়ে সাহায্য করেছেন, এখানে টাকা নেওয়ার কোনও বিষয় নেই। তাঁকে কুপন দিতে দেখে অন্যান্যরা ভুল বুঝে তার উপর চড়াও হয়। পাশাপাশি তিনি কুপন চিবিয়ে ফেলার বিষয়টিও অস্বীকার করে বলেন তিনি কুপনটি নিয়ে ফেলে দিয়েছেন।

ফুলেফেঁপে উঠেছে আত্রেয়ী, আতঙ্কে দিন কাটছে নদী পারের বাসিন্দাদের

ভ্যাক্সিন প্রাপক রাজশ্রী দেবনাথ জানান, তাঁরা ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য ভোর থেকে লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন। হঠাৎ তাঁরা লক্ষ্য করেন একটি ছেলে এক পুলিশ কর্মীর কাছ থেকে কুপন নিচ্ছে। তখন তা্র কাছে কেন কুপন নিয়েছে তা জানতে চাইলে সে জানায় ওই পুলিশকর্মী ৩০০ টাকার বিনিময়ে তাকে কুপনটি দিয়েছে। এরপর অভিযুক্ত পুলিশকর্মীকে ডাকা হলে তিনি এসে কুপনটি নিয়ে মুখে ঢুকিয়ে চিবিয়ে খেয়ে ফেলেন। এমনকি তিনি কেন এমন করলেন একজন তা জানতে চাইলে তাকে সিভিক ভলেন্টিয়ার দিয়ে ওই পুলিশকর্মী বেধড়ক মারধর করেন বলেও অভিযোগ উঠেছে।

মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষের তরফে ভ্যাকসিন কন্ট্রোল ম্যানেজার সব্যসাচী মুখার্জি জানিয়েছেন, এখনও কোনও লিখিত বা মৌখিক অভিযোগ তিনি পাননি। এই বিষয়ে অভিযোগ দায়ের হলে সিসিটিভি ফুটেজ চেক করে বিচার বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পাশাপাশি তিনি এও জানান, ২১ জুলাই মহিলা পুলিশের জন্য আবেদন করা হলেও এখনও কোনও মহিলা পুলিশ ভ্যাকসিনের লাইনে মোতায়েন করা হয়নি, তবে আগামী দিনে রায়গঞ্জ থানা থেকে ৪ জন মহিলা পুলিশ দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

Related News

Leave a Reply

Back to top button