রাজ্য

এবারের ভোটে সব দলকেই জনসভা করতে হবে কমিশন নির্ধারিত স্থানে

বেজে গিয়েছে বিধানসভা নির্বাচনের দামামা। রুটমার্চ শুরু হয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনীর। প্রশিক্ষণ শুরু ভোট কর্মীদের৷ কোভিড পরিস্থিতিতে নির্বাচনের আয়োজনে থাকছে একগুচ্ছ নতুন বন্দোবস্ত। এবারের ভোটে পুরুষদের পাশাপাশি মহিলাদেরও ভোট কর্মী হিসেবে বুথে পাঠাবে কমিশন। করোনার কারণে ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা প্রায় ৩২ শতাংশ বেড়ে যাওয়ার কারণেই মহিলা ভোট কর্মীদেরও কাজে লাগানো হবে বলে নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে।

 

 

Bengal Live রায়গঞ্জঃ এবারের ভোটে নির্বাচনী প্রচারের জন্য কমিশনের তরফেই নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে জনসভার মাঠ। উত্তর দিনাজপুর জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, জেলার ৯ টি বিধানসভা এলাকা মিলে মোট ২২১টি মাঠকে চিহ্নিত করা হয়েছে সভার জন্য। মাঠের পরিধি মাপার কাজও সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলাশাসক অরবিন্দ কুমার মিনা।

শনিবার নির্বাচন সংক্রান্ত নানান বিষয় নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেন উত্তর দিনাজপুর জেলা নির্বাচনী আধিকারিক তথা জেলাশাসক অরবিন্দ কুমার মিনা। তিনি বলেন, জেলায় বিধানসভা নির্বাচনী বিজ্ঞপ্তি জারি হবে ২৬ শে মার্চ। ৩০ শে এপ্রিল মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন। ৫ ই এপ্রিল মনোনয়ন স্ক্রুটিনির দিন ধার্য করেছে নির্বাচন কমিশন। ৭ এপ্রিল মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন। উত্তর দিনাজপুর জেলায় মোট ভোটার রয়েছেন ২১ লক্ষ ৫৩ হাজার ৬৭৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১১ লক্ষ ১৩ হাজার ৬৯০ জন এবং মহিলা ভোটার রয়েছেন ১০ লক্ষ ৩৯ হাজার ৮৯৫ জন। তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন ৯১ জন।

উত্তরবঙ্গের কোন আসনে কবে ভোট ? এক ঝলকে বিস্তারিত

কোভিড পরিস্থিতিতে এবারে বিধানসভা নির্বাচনে ভোট কেন্দ্র বেড়ে হয়েছে ৩ হাজার ৭৬ টি। এর মধ্যে প্রধান ভোট কেন্দ্র ২ হাজার ৭৫ টি। অতিরিক্ত ভোট কেন্দ্র তৈরি করা হয়েছে ১ হাজার ১ টি। মোট ভোট কর্মী রয়েছেন ১২ হাজার ৫৫০ টি বলে জানিয়েছেন অরবিন্দ কুমার মিনা। বিধানসভা নির্বাচনে প্রবীণ, অসুস্থ, প্রতিবন্ধী মানুষদের জন্য ভোটদানের ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা এনে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। তাঁরা ইচ্ছা করলে বাড়িতে বসেই পোস্টাল ব্যালোট ব্যবহার করে ভোট দিতে পারবেন। এরজন্য নির্বাচন কমিশনের কর্মিরা নিরাপত্তার সঙ্গে বাড়িতে ব্যালোট পেপার নিয়ে হাজির হয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন জেলা নির্বাচনী আধিকারিক অরবিন্দ কুমার মীনা।

জেলা নির্বাচনী আধিকারিক অরবিন্দ কুমার মিনা জানান, জনসভার জন্য চলতি বছরে জেলার নয়টি বিধানসভা কেন্দ্র মিলিয়ে ২২১টি মাঠ নির্ধারিত করে দেওয়া হয়েছে। নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে রাজনৈতিক দলগুলিকে সেই মাঠ ব্যবহারের জন্য আবেদন জানাতে হবে। জানা গেছে, চোপড়ায় ২৬টি, ইসলামপুরে ১১টি, গোয়ালপোখরে ১৫টি, চাকুলিয়ায় ১৬টি, করণদিঘিতে ১৫টি, হেমতাবাদে ৬৪টি, কালিয়াগঞ্জে ১৫টি, রায়গঞ্জে ২৬টি, ইটাহারে ৩৩টি মাঠ বেছে নিয়েছে কমিশন। ইতিমধ্যেই মাঠগুলির পরিধি মেপে কোভিড পরিস্থিতিতে কত মানুষের জমায়েত করা যেতে পারে তা সুনির্দিষ্ট করেছে জেলা নির্বাচনী আধিকারিক।

ব্রিটিশদের হাতে ধরা দেবেন না বলে নিজেই বুলেটবিদ্ধ হয়েছিলেন চন্দ্রশেখর আজাদ

Related News

Leave a Reply

Back to top button