রাজ্য

জলপাইগুড়িতে বন দপ্তরের অভিযান, প্রচুর চোরাই কাঠ সহ উদ্ধার হরিণের শিং

চোরাই কাঠ উদ্ধারে গিয়ে হরিণের শিং পেলেন বনকর্মীরা। বনদপ্তর এই অভিযানকে বড়সড় সাফল্য হিসেবেই দেখছে। যদিও এখনও কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।

চন্দ্রগ্রহণ ২০২০ঃ করোনা আবহে বছরের শেষ চন্দ্রগ্রহণ, বিজ্ঞান মতে মহাজাগতিক ঘটনা

Bengal Live জলপাইগুড়িঃ চোরাই কাঠের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে বড় সাফল্য পেলেন বনকর্মীরা। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে হলদিবাড়ি চা বাগান এলাকায় অভিযান চালান মরাঘাট রেঞ্জের বনকর্মী ও বানারহাট থানার পুলিশ। অভিযান চালিয়ে লক্ষাধিক টাকার চোরাই কাঠ ও হরিণের সিং উদ্ধার করেন বনকর্মীরা।

সোমবার হলদিবাড়ি চা বাগানের মনিপুর লাইন, বড় লাইন ও মন্দির লাইন এলাকায় অভিযান চালান বন কর্মীরা। এলাকা থেকে প্রায় চার লক্ষ টাকার চোরাই শাল ও সেগুন গাছের লগ উদ্ধার হয়। একটি বন্ধ ঘরের ভেতর থেকে চোরাই কাঠের সাথে হরিণের সিং উদ্ধার করেন তাঁরা ।

আজকের রাশিফল, সোমবার, ৩০ নভেম্বর

চোরাই কাঠের ব্যবসা বন্ধ এবং কাঠ পাচারের বিরুদ্ধে বেশ কয়েক মাস থেকেই অভিযান চালিয়ে যাচ্ছেন মরাঘাট রেঞ্জের বনকর্মীরা।
ডুয়ার্সের মরাঘাট জঙ্গলের বানারহাট থানার অন্তর্গত হলদিবাড়ি চা বাগান বরাবর কাঠ চোরদের ডেরা হিসাবেই চিহ্নিত বন দপ্তরের খাতায়। হলদিবাড়ি বাগানের পরিত্যক্ত কোয়ার্টার থেকে এর আগেও প্রচুর পরিমানে চোরাই কাঠ উদ্ধার করেছিলেন বনকর্মীরা।

মরাঘাট রেঞ্জের রেঞ্জার রাজকুমার পাল বলেন, “গোপন সূত্রে খবর পেয়ে হলদিবাড়ি চা-বাগানের মনিপুর লাইন, মন্দির লাইন, বড় লাইন এলাকায় অভিযান চালানো হয়। প্রচুর পরিমানে চোরাই শাল, সেগুন কাঠের পাশাপাশি একটি হরিণের সিং ও উদ্ধার হয়েছে। বন দপ্তরের আইন অনুযায়ী নির্দিষ্ট ধারায় মামলা করা হবে।”

তুহিন কুমার চন্দের কলমে গল্প “দুধ”

Related News

Leave a Reply

Back to top button