রাজ্য

বাড়ি থেকে উদ্ধার চারটি মৃতদেহ

১৯ বছরের তরুণ কেন তার পরিবারের চার সদস্যকে নির্মম ভাবে হত্যা করল এখন সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতেই ব্যস্ত তদন্তকারীরা।

 

Bengal Live মালদাঃ মালদার কালিয়াচকের বাড়ি থেকে চার মৃতদেহ উদ্ধার করল পুলিশ। বাবা মা সহ পরিবারের চার সদস্যকে মাস চারেক আগে হত্যা করার অভিযোগ ছেলের বিরুদ্ধে। পরিবারের সদস্যদের খুনের পর মাটিতে পুঁতে রাখার অভিযোগ ওঠে ১৯ বছরের ছেলের বিরুদ্ধে। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করার পরেই শনিবার ধৃতের বাড়িতে তল্লাশি চালায় পুলিশ। প্রায় দুই ফুট নীচে মাটিতে গর্ত করে চারটি মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়।

মালদা জেলা পুলিশ সুপার অলোক রাজরীয়া বলেন, ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে আমরা বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে চারটি মৃতদেহ উদ্ধার করেছি। মৃতদেহ গুলো ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এখনও পর্যন্ত জানা গেছে, গত ২৮ ফেব্রুয়ারি সফট ড্রিঙ্কের সাথে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে মা, বাবা, বোন ও দিদাকে খাইয়েছিল আসিফ। এরপর হাত পা বেধে জলে চুবিয়ে হত্যা করেছে অভিযুক্ত। তবে কেন পরিবারের চার সদস্যকে খুন করল আসিফ? তা জানার জন্য জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এদিকে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বেশ কিছু ইলেকট্রনিক গ্যাজেট উদ্ধার হয়েছে আসিফের বাড়ি থেকে। একাধিক সিসি ক্যামেরাও লাগানো ছিল আসিফের বাড়িতে। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷

Related News

Leave a Reply

Back to top button