রাজ্য

ফুলঘরায় দুর্গা পুজোয় স্বারম্বরে পূজিতা হন মনসাও

তিন শতাধিক বছর ধরে দেবী দুর্গার মতোই দুর্গাপুজোর পাঁচ দিন মা মনসা নিয়ম মেনে নিষ্ঠা পুজো নেন ফুলঘরা গ্রামে।

Bengal Live বালুরঘাটঃ শারদীয় দুর্গোৎসবে একই আসনে দেবী দুর্গার পাশাপাশি পূজিতা হয়ে আসছেন মনসা। তিন শতাধিক বছর ধরে এমনই রীতি চলে আসছে বালুরঘাটের ফুলঘরা গ্রামে। প্রতি বছর মনসা দেবী দুর্গার মতোই নিয়ম মেনে নিষ্ঠা ভরে অশ্বিনের পাঁচ দিন ভক্তদের পুজো নিয়ে থাকেন। এই সময় ভক্তি পূর্ণ মনে কিছু চাইলে মা তা পূরণ করেন এমন বিশ্বাসই প্রচলিত রয়েছে গ্রামবাসীদের মধ্যে ।

লোকশ্রুতি মতে, এক সময় ফুলঘরা গ্রামে সর্পাঘাতে একের পর এক মৃত্যু ঘটছিল। শুধু মাত্র মানুষই নয়, রেহাই পাচ্ছিল না গবাদি পশুরাও। সর্পাঘাতে অতিষ্ঠ গ্রামবাসীরা কোনো উপায়েই ঠেকাতে পারছিল না এই মৃত্যু মিছিল। এমনসময় ওই গ্রামের বাসিন্দা গুদর মণ্ডলকে দেবী মনসা স্বপ্নে নিষ্ঠা ভরে তাঁর পুজো করার আদেশ দেন। দেবী জানান, গ্রামে মনসা পুজো করলেই কেউ আর সর্পাঘাতে মারা যাবে না। এর কিছুদিন পর গুদর মণ্ডল স্নান করতে আত্রেয়ী নদীতে গেলে দেখেন মা মনসার কাঠাম ভেসে যাচ্ছে। তিনি তা গ্রামবাসীদের জানালে তাঁরা সেই কাঠাম তুলে নিয়ে এসে মন্দিরে স্থাপন করেন। এবং তারপর থেকে প্রতি বছর শারদীয়া দুর্গা পুজোর সাথেই মা মনসার পুজোও প্রচলিত হয় ফুলঘরা গ্রামে।

Balurghat

ফুলঘরা গ্রামের বাসিন্দা, শিশির দাস জানিয়েছেন, দূর্গা পুজোর সাথে সাথেই এখানে মা মনসার পুজো হয়। এই পুজোতে দূর্গা পুজোর সমস্ত নিয়ম পালন করা হয় পাশাপাশি দেবী মনসার যে রীতি রেওয়াজগুলি রয়েছে সেগুলিও নিয়ম নিষ্ঠা ভরে পালন করা হয়।

এলাকাবাসী তাপসী দাস জানিয়েছেন, এখানে দেবী মনসার পূজো আশ্বিন মাসে দুর্গাপুজো সাথেই হয়। দুর্গাপুজোর মতোই ষষ্ঠী থেকে দশমী পাঁচ দিন ধরে দেবী মনসার পুজো করা হয়।

Related News

Leave a Reply

Back to top button