রাজ্য

তিনমাস পর খুলল কোচবিহারের মদনমোহন মন্দির

Join our WhatsApp group

প্রায় তিনমাস পর কোচবিহার মদনমোহন মন্দিরের দরজা খুলল। পূজা দিলেন কোচবিহারের জেলা শাসক।

Bengal Live কোচবিহারঃ খুলে গেল মদনমোহন মন্দির । তবে করোনা মোকাবিলায় বাড়তি সতর্কতা মাথায় রেখেই মন্দিরে ঢোকার অনুমতি পাবেন ভক্তরা। আজ জেলাশাসক পবন কাদেয়ান পুজো দেন। এরপরেই পুজো দেন ভক্তরা। কোচবিহারের মহারাজাদের কুলদেবতা মদনমোহন ঠাকুরের মন্দির বন্ধ ছিল ২৫ মার্চ থেকে। প্রায় তিনমাস পর খুলল মন্দিরের দরজা। ভক্তরা একসাথে ১৫ জন করে মন্দিরে ঢোকার অনুমতি পাবেন। পুজো দিতে মন্দিরে এলে প্রথমে নিতে হবে নির্দিষ্ট টিকিট। সেই টিকিট দেখিয়ে প্রথম ১৫ জন ভক্ত পাবেন অগ্রাধিকার। মন্দিরের বারান্দায় ওঠার অনুমতি দেওয়া যাবেনা ভক্তদের। অন্ন ভোগ আপাতত বন্ধ থাকছে মন্দিরে। শুধুমাত্র সন্দেশ ও ফল দিয়ে ভোগ দেওয়ার অনুমতি পাবেন ভক্তরা।

মন্দির সূত্রে খবর কোনও ভক্ত মন্দিরে এলে প্রথমে তাঁকে থার্মাল চেকিং করে শরীরের তাপমাত্রা মাপা হবে। তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকলে তবে জুতো গেটের বাইরে রেখে মন্দিরে ঢোকার অনুমতি মিলবে। পুজো দিয়েই বেরিয়ে যেতে হবে মন্দির থেকে। মন্দির লাগোয়া বাগানে ঘোরা ফেরা একেবারেই বন্ধ। কোচবিহারের মদনমোহন ঠাকুর জেলার বাসিন্দাদের প্রাণের ঠাকুর। সাধারণ মানুষের আবেগের সাথে জড়িয়ে আছে মদনমোহন ঠাকুর।

১৮৮৯ সালে এই মন্দির প্রতিষ্ঠা করেন মহারাজা নৃপেন্দ্র নারায়ণ। এরপর থেকেই মন্দিরকে ঘিরেই বারো মাসে তেরো পার্বণ পালিত হয় কোচবিহারে। জানা গেছে আজ থেকে প্রতিদিন সকালে ১০ টা থেকে ১ টা, আবার বিকেলে ৪ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত খোলা থাকবে মন্দির। জেলাশাসক পবন কাদেয়ান জানান করোনা মোকাবিলায় বাড়তি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে তাই যাতে বেশি ভক্ত ভিড় না করেন তাই ১৫ জন করে ভক্ত মন্দিরে ঢুকতে পারবে৷ তাঁরা পুজো দিয়ে বেরিয়ে গেলে আবার ১৫ জন ভক্ত ঢুকবেন।

Related News

Leave a Reply

Back to top button