রাজ্য

বিজেপি হিন্দু ভোট নেবে, হায়দ্রাবাদের নেতা মুসলিম ভোট নেবে, আমি কি কাঁচা কলা খাবো ?– মমতা

তিন দিনের উত্তরবঙ্গ সফরে এসে জলপাইগুড়ির এবিপিসি  সভামঞ্চ থেকে বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। ধন্যবাদ জানালেন বিমল গুরুংকে।

 

Bengal Live জলপাইগুড়িঃ জলপাইগুড়ির সভা থেকে কড়া ভাষায় বিজেপিকে আক্রমণ তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। বিমল গুরুংকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি বিজেপিকে ঘৃণ্য ধর্মের প্রচারক বলে কটাক্ষ করেন তৃণমূল নেত্রী। বিজেপি, কংগ্রেস, সিপিএমকে ফের অঙ্কা, বঙ্কা, শঙ্কা বলে ব্যঙ্গ করেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

সোমবার বিকেলে তিনদিনের উত্তরবঙ্গ সফরে জলপাইগুড়ি পৌঁছান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাতে দলীয় কর্মী ও প্রশাসনিক কর্তাদের সাথে কথা বলেন তৃণমূল নেত্রী। এরপর এদিন সকালে একটি সভায় বক্তব্য রাখেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখান থেকে সোজা কোচবিহারের উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি৷ এদিন রাতে সেখানে থেকে আগামীকাল বুধবার কোচবিহারের রাসমেলা ময়দানে একটি সভায় বক্তব্য রাখবেন তিনি। বুধবার দিনই কলকাতায় ফিরে যাওয়ার কথা তাঁর।

এদিন জলপাইগুড়ির সভা মঞ্চে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, বিজেপির প্রতিশ্রুতি মানে প্রতারণা। প্রতিবার ভোটের আগে গোর্খাল্যান্ডের নামে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। কিন্তু কোনও কাজ করেনি। ভুল বুঝতে পারার জন্য বিমল গুরংকে ধন্যবাদ। দার্জিলিঙের স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধান তৃণমূলই করবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন মুখ্যমন্ত্রী। উত্তরবঙ্গের ৩৭০টি চা বাগানের কর্মীদের জন্য চা সুন্দরী প্রকল্পে পাকা ঘর তৈরি করে দেওয়ার ঘোষণা করেন তিনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, প্রথম ধাপে জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ারের বন্ধ সাত বাগানে ৬৯৪ ও ১০৫৩ টি বাড়ি নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। ধাপে ধাপে বাকিগুলোও তৈরি করে দেওয়া হবে। ৬০০ প্রাক্তন কেএলও সদস্যকে চাকরি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন তিনি। এছাড়াও আজ কোচবিহারে পৌঁছে নব নির্মিত মেডিক্যাল কলেজের উদ্বোধন করবেন বলেও জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বাংলায় ৪০ শতাংশ দারিদ্র‍্য কমেছে বলেও এদিন বক্তব্যে বলেন তিনি।

এদিন বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সাধারণ মানুষদের উদ্দেশ্য করে তাঁর মন্তব্য, নির্বাচনের সময় টাকা দিতে এলে নিয়ে নেবেন, ভোটের বাক্সে সব উলটে দেবেন। দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আপনাদের লক্ষ্য বিজেপি নামক পার্টিটাকে বাংলা থেকে দূর করে দেওয়া। ভুল করলে মানুষের কাছে ক্ষমা চান। নতুন পুরানোকে একসাথে কাজ করার বার্তা দেন সভা মঞ্চ থেকে।

এদিকে বিজেপির পাশাপাশি রাজনৈতিক দল মিমকেও একহাত নেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মিমকে কটাক্ষ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, বিজেপি টাকা দেয়, আর হায়দ্রাবাদের দল কাজ করে। বিজেপি হিন্দু ভোট নেবে, হায়দ্রাবাদের নেতা মুসলিম ভোট নেবে, আমি কী কাঁচা কলা খাবো? ডিসেম্বরের পর থেকে উলটো মার শুরু হবে, দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আমার গায়ে আঘাত করলে, কোটি কোটি গুন্ডা আনলেও আমার প্রত্যাঘাত রুখতে পারবে না। বাংলার মেরুদণ্ড ভাঙতে দেবো না বলে সভামঞ্চ থেকে স্পষ্ট বার্তা দেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Related News

Leave a Reply

Back to top button