রাজ্য

সেরার শিরোপা এবার উত্তরে, কন্যাশ্রী প্রকল্পে প্রথম আলিপুরদুয়ার

কন্যাশ্রী প্রকল্পে সেরার সেরা আলিপুরদুয়ার।এই ঘোষণার পরই খুশির হাওয়া আলিপুরদুয়ার জেলা প্রশাসনের অন্দরে। পাশাপাশি প্রথম চারে রয়েছে কালিম্পং ,দার্জিলিং,কোচবিহার ও শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদ।

 

আলিপুরদুয়ারঃ এবার কন্যাশ্রী প্রকল্পের জয়জয়কার উত্তরবঙ্গে। কন্যাশ্রী প্রকল্প রুপায়ণে সেরার শিরোপা পেতে চলছে আলিপুরদুয়ার। পুরস্কৃত করা হবে আলিপুরদুয়ার জেলাকে। সূত্রের খবর, রাজ্যের ২৬টি জেলার মধ্যে কন্যাশ্রী প্রকল্পে ভালো কাজের নিরিখে নম্বরের তালিকার শীর্ষে রয়েছে আলিপুরদুয়ার। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই উচ্ছসিত জেলার সর্বস্তরের আধিকারিকরা। তবে শুধু আলিপুরদুয়ারই নয় এই প্রকল্প রূপায়নের ক্ষেত্রে নজর কেড়েছে উত্তরবঙ্গের একাধিক জেলা। অন্য জেলাগুলির মধ্যে রয়েছে কালিম্পং, দার্জিলিং ও কোচবিহার ।আগামী ১৪ই আগস্ট কন্যাশ্রী দিবস। আর এই বিশেষ দিনেই কোলকাতায় আলিপুরদুয়ার জেলাকে পুরস্কৃত করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বর্ষায় নষ্ট হচ্ছে রান্নাঘরের মশলাপাতি! জেনে নিন মশলা ভালো রাখার উপায়

প্রশাসন সূত্রে খবর, নম্বর তালিকার নিরিখে আলিপুরদুয়ার জেলার প্রাপ্ত নম্বর ৯৯.৮২। তার পরেই ৯৯.৮১ নম্বর পেয়ে রয়েছে জেলা কালিম্পং । তৃতীয় স্থানে থাকা দার্জিলিং পেয়েছে নম্বর ৯৯.৬৬। এরপর কোচবিহার ও শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের নম্বর যথাক্রমে ৯৯.৩৬ এবং ৯৯.১৯।

এবিষয়ে আলিপুরদুয়ার জেলা শাসক সুরেন্দ্র কুমার মিনা জানান, কন্যাশ্রী প্রকল্পে ভালো কাজের নিরিখে চারটি জেলাকে বেছে নেওয়া হয়েছে। তার মধ্যে আলিপুরদুয়ার ছাড়াও কালিম্পং, দার্জিলিং ও কোচবিহার জেলাও রয়েছে। মহকুমা পরিষদ হিসাবে নাম রয়েছে শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের। এছাড়াও তিনি বলেন, ২০২০-২১ অর্থ বর্ষে কন্যাশ্রী প্রকল্প-১ এর জন্য মোট ৪৪ হাজার ২৪৮টি আবেদন জমা পড়েছিল। এর মধ্যে ৪৪ হাজার ১৮৭টি আবেদন মঞ্জুর হয়েছিল।

একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির দাবিতে জাতীয় সড়কে বিক্ষোভ অবরোধ পড়ুয়াদের

ইতিমধ্যেই টাকা দেওয়া হয়েছে ৪৩ হাজার ৯১১ জন ছাত্রীকে। পাশাপাশি, কন্যাশ্রী প্রকল্প-২ এর জন্য মোট ৯ হাজার ৭৬৮টি আবেদন জমা পড়েছিল। মঞ্জুর হয়েছিল ৯ হাজার ৭১৮টি আবেদন। টাকা দেওয়া হয়েছে ৯ হাজার ৬৮৫ জনকে ছাত্রীকে। এই ভালো কাজের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রকল্পের আধিকারিক সহ শিক্ষক ও পড়ুয়াদের অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের জেলার ব্লক প্রশাসন থেকে শুরু করে প্রশাসনের সমস্ত কর্মীরা

Related News

Leave a Reply

Back to top button