রাজ্য

বিকল পৌরসভার শববাহী যান, দুর্ভোগে শহরবাসী

শববাহী গাড়ী নষ্ট হয়ে পড়ে থাকায় মৃতদেহ শ্মশানে নিয়ে যেতে সমস্যায় শহরবাসী। বাইরে চড়া দামে শববাহী গাড়ি ভাড়া করতে বাধ্য হচ্ছেন তারা।

 

 

Bengal Live বালুরঘাটঃ বিকল অবস্থায় গ্যারাজে পরে রয়েছে পৌরসভার শববাহী যান। ফলে মৃতদেহ শ্মশানে নিয়ে যেতে রীতিমত নাজেহাল হতে হচ্ছে বালুরঘাট পুরসভার বাসিন্দাদের। অন্য শববাহী গাড়ী ভাড়া করতে দ্বিগুণ থেকে তিনগুণ বেশী ভাড়ার টাকা গুনতে হচ্ছে বালুরঘাটবাসীকে।

পৌরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে, বর্তমানে একটি মাত্র শববাহী গাড়ী রয়েছে বালুরঘাট পৌরসভার অধীনে। তাও আবার নষ্ট হয়ে পড়ে রয়েছে গ্যারাজে। ফলে পৌরসভার তরফে গাড়ি না পাওয়ায় বিভিন্ন ওষুধের দোকান থেকে তিনগুণ দামে গাড়ী ভাড়া করতে বাধ্য হচ্ছেন শহরবাসী। অন্যদিকে, করোনায় মৃত ব্যক্তির পরিবারের কাছ থেকে কোন টাকা না নিয়েই নিজ খরচে বাইরে থেকে গাড়ি ভাড়া করছে পৌরসভা। এবিষয়ে বালুরঘাট পুরসভার চেয়ারম্যান শেখর দাশগুপ্ত জানান, আমাদের পৌরসভার একটি মাত্র শববাহী গাড়ি। সেটির অবস্থা খুবই খারাপ ছিল। গাড়ির সম্পূর্ণ মেরামতের জন্য গ্যারেজে পাঠানো হয়েছে। আশা করছি কয়েক দিনের মধ্যেই গাড়ীটি ঠিক হয়ে ফিরে আসবে।

 

এদিকে শববাহী গাড়ি না পাওয়ার অভিযোগে জানিয়ে এক বাসিন্দা ভাস্কর চক্রবর্তী বলেন, মায়ের মৃতদেহ শ্মশানে নিয়ে যেতে যথেষ্ট হয়রান হতে হয়েছে। রবিবার বিকেলে হাসপাতাল থেকে মৃত্যুসংবাদ এসে পৌঁছতেই পুরসভার শববাহী গাড়ির জন্য যোগাযোগ করি। সেখান থেকে বলা হয়েছে গাড়ি খারাপ হয়ে পড়ে রয়েছে। নিরুপায় হয়ে শহরের একটি ওষুধের দোকান থেকে দ্বিগুণ টাকায় শববাহী গাড়ি ভাড়া করেছিলাম। তারপরেই মায়ের মৃতদেহ শ্মশানে নিয়ে যেতে পেরেছি। পরিষেবার জন্য পৌরসভার অন্তত একটি গাড়ি বিকল্প হিসেবে রাখা উচিত।

শহরের অন্য এক বাসিন্দা রামগোপাল মন্ডল বলেন, বালুরঘাট পুরসভার ২৫ টি ওয়ার্ড রয়েছে। বাসিন্দাদের জনসংখ্যার অনুপাতের হিসেবে পুরসভার দুটি গাড়ি রাখা উচিত। গাড়ির যান্ত্রিক গোলযোগ যে কোন সময় হতে পারে। কিন্তু তার জন্য নাগরিকরা চড়া দামে বাইরে থেকে শববাহী গাড়ি ভাড়া করতে বাধ্য হবে এটা কাম্য নয়।

Related News

Leave a Reply

Back to top button