রাজ্য

দুটি মাথা,চারটি হাত এবং চারটি পা, অদ্ভুত দর্শন শিশুর জন্ম উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে

বুকের অংশ জোড়া অবস্থায় যমজ শিশুর জন্ম দিলেন মালবাজারের এক প্রসূতি। জন্মলাভের কয়েক ঘণ্টা পরেই মারা যায় শিশু দুটি।

 

Bengal Live শিলিগুড়িঃ অদ্ভুত দর্শন শিশুর জন্ম ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়লো উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে বারোটা নাগাদ দুটি মাথা,চারটি হাত এবং চারটি পা নিয়ে একটি শিশুর জন্ম দেন এক প্রসূতি।

জানা গেছে, মালবাজারের মৌলানি ব্লকের আদাবাড়ির বাসিন্দা ওই গৃহবধূ।  অস্বাভাবিকতা দেখা দেওয়ায় মালবাজার থেকে তাকে রেফার করা হয় উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। সেখানেই অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তিনি দুটি‌ কন্যা সন্তানের জন্ম দেন, যাদের বুকের অংশ জোড়া অবস্থায় ছিল। নির্দিষ্ট সময়ের আগেই জন্ম নেওয়ায় এবং এমন অস্বাভাবিকতা থাকায় জন্মলাভের কয়েক ঘণ্টা পরেই শিশু দুটি মারা যায়।

পরিবার সূত্রে খবর, প্রথম রিপোর্টে কোন সমস্যা ধরা না পড়লেও, শেষ রিপোর্টে মালবাজার থেকে তাদের জানানো হয় দুটি বাচ্চার বুকের কাছে জোড়া আছে। এরপর ওই প্রসূতিকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বৃহস্পতিবার রাতে অস্ত্রোপচার করে তার দুটো শিশুকে জোড়া লাগা অবস্থায় বের করা হয়। জন্মের পর শিশুগুলি দু’ঘণ্টা বেঁচেছিল, তারপর মারা যায়।

উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজের ডিন চিকিৎসক সন্দীপ সেনগুপ্ত জানিয়েছেন, এটি খুবই একটি বিরল ঘটনা, পঁয়ত্রিশ হাজার থেকে দুই লাখে এরকম একটা শিশু জন্ম নেয়। তবে এই প্রথম নয় পশ্চিমবঙ্গে এরকম ঘটনা আগেও ঘটেছে। আসলে শিশু দুটি যমজ, কিন্তু তাদের বুকের কাছে একসাথে জোড়া। এই শিশু দুটি মাত্র ২৪ সপ্তাহের মাথায় জন্মলাভ করেছে ফলে তাদের বাঁচার আশা খুবই কম। তবে অন্য ক্ষেত্রে এরকম শিশু আরেকটু পরিণত হয়ে জন্ম নিলে বিভিন্ন অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তাদের বাঁচানো সম্ভব।

Related News

Leave a Reply

Back to top button