রায়গঞ্জ

দুই সপ্তাহ পর খুলল স্কুলের তালা, ফের তালা দিলে আইনি পদক্ষেপের হুমকি

দুই সপ্তাহ পর খুলল স্কুলের তালা, ফের তালা দিলে আইনি পদক্ষেপের হুমকি

Bengal Live রায়গঞ্জঃ প্রায় দুই সপ্তাহ তালা বন্ধ অবস্থায় থাকার পর প্রশাসনিক উদ্যোগে শনিবার ফের খুলল স্কুলের দরজা। পুলিশ ও প্রশাসনের কর্তাদের উপস্থিতিতে এদিন বন্ধ তালা ভেঙে স্কুলের দরজা খুলে দেওয়া হয় পড়ুয়াদের জন্য। সপ্তাহের শুরু থেকেই স্বাভাবিক ছন্দে ফিরবে স্কুল বলে আশাবাদী প্রশাসন। এদিকে জমিদাতাদের পক্ষ থেকে ফের স্কুলে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারিও এদিন দেওয়া হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে।

সরকারি চাকরির প্রতিশ্রুতি পেয়ে স্কুল তৈরির জন্য জমি দান করেছিলেন হেমতাবাদ থানার পূর্ব ইসলামপুর গ্রামের জহুরুদ্দিন আহমেদের পরিবার। কিন্তু ১৩ বছর কেটে গেলেও সরকারি চাকরি এখনও দেওয়া হয়নি জমিদাতা পরিবারের কাউকে। এমন অভিযোগ এনেই দান করা জমি ফিরয়ে নিতে চেয়ে স্কুল ভবনে তালা ঝোলান জমিদাতা পরিবার।

অগত্যা পড়ুয়াদের সঙ্গে গাছ তলাতেই আশ্রয় নিতে হয় স্কুলের শিক্ষকদের। সেখানেই প্রায় দুই সপ্তাহ চলে পঠন পাঠন। বন্ধ থাকে মিড ডে মিল।
এমন অচলাবস্থার চিত্র ধরা পড়েছে উত্তর দিনাজপুর জেলার হেমতাবাদ ব্লকের পূর্ব ইসলামপুর গ্রামে এমন অচলাবস্থার চিত্র সংবাদমাধ্যমে ধরা পড়তেই নড়েচড়ে বসে জেলা শিক্ষা দপ্তর ও প্রশাসন।

জমিদাতা পরিবারের সদস্যা জহুরা খাতুনের অভিযোগ, ১৩ বছর আগে স্কুল তৈরির জন্য জমি দান করা হয়েছিল। স্থানীয় প্রশাসন সেই সময় পরিবারের একজনকে সরকারি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কিন্তু এতোদিন কেটে গেলেও প্রতিশ্রুতি ফলপ্রসূ হয়নি। আর্থিক অনটনে আমাদের সংসার চলছে না। সেই কারণে স্কুলে তালা ঝুলিয়ে আমরা আমাদের জমি ফেরৎ চাইছি। জহুরা দেবী আরও বলেন, এই নিয়ে দ্বিতীয় বার স্কুলে তালা ঝোলানো হল। এর আগে পুলিশ এসে তালা ভেঙে স্কুল খুলে দিয়েছিল। কিন্তু আমরা আবার স্কুলে তালা ঝুলিয়েছিলাম।

এদিন বিকেল ৩ টা নাগাদ প্রাথমিক শিক্ষা দপ্তর ও পুলিশ স্কুলের দরজায় ঝোলানো তালা ভেঙ্গে দেয়। তারপরই ছাত্রছাত্রীরা ও শিক্ষকরা স্কুলে প্রবেশ করে। এদিন স্কুল অর্ধদিবস থাকায় মিড ডে মিল খাওয়ানো যায়নি ছাত্রছাত্রীদের। অবর বিদ্যালয় পরিদর্শকের দাবী, আগামী সপ্তাহ থেকে স্বাভাবিক হবে স্কুল ও মিড ডে মিল। পরবর্তীতে জমিদাতা পরিবারের সদস্যরা পুনরায় স্কুলে তালা লাগালে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button