রায়গঞ্জ

বিজেপি করার অপরাধে মারধর, অভিযোগ রায়গঞ্জে

আক্রান্ত বিজেপি কর্মীর বাড়িতে যান রায়গঞ্জের বিধায়ক। দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে সরব হয়েছেন তিনি।

 

Bengal Live রায়গঞ্জঃ বিজেপি করার অপরাধে এক ব্যক্তিকে মারধর করার অভিযোগ উঠলো দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে রায়গঞ্জ পুর এলাকার ৬ নম্বর ওয়ার্ডে। খবর পেয়ে বিজেপি কর্মীর বাড়িতে গেলেন রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যানী। বিজেপি কর্মীকে মারধর করার ঘটনার সাথে জড়িত দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন তিনি।

জানা গিয়েছে, রায়গঞ্জ পুর এলাকার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মিলনপাড়ার বাসিন্দা বিজেপি কর্মী সুজিত তোডি দীর্ঘদিন ধরে বিজেপি সক্রিয় কর্মী হিসেবে কাজ করেছিলেন। এবারের বিধানসভা নির্বাচনেও বিজেপির প্রচার সহ বিভিন্ন কাযে যুক্ত ছিলেন তিনি।

আক্রান্ত বিজেপি কর্মীর অভিযোগ, মঙ্গলবার গভীর রাতে কয়েকজন দুষ্কৃতী ডাকাডাকি করে দোকান খোলার জন্য বলে। প্রথমে না করলেও দুষ্কৃতীরা গালিগালাজ শুরু করলে দোকান খুলতে বাধ্য হই। চাহিদামতন জিনিসপত্র দেওয়ার পর বিজেপি কেন করি জিজ্ঞেস করে বেধড়ক মারধর করতে থাকে তৃণমুল কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীরা৷ স্বামীকে মারধর করতে দেখে সুজিত বাবুর স্ত্রী ছুটে এসে চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন। আওয়াজ পেয়ে আশেপাশের প্রতিবেশীরা ছুটে এলে দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যায় বলে জানিয়েছেন সুজিত তোদী। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে।

বুধবার সকালে খবর পেয়েই বিজেপি কর্মী সুজিতের বাড়িতে ছুটে আসেন রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যানী। আহত বিজেপি কর্মী সুজিত ও তাঁর পরিবারের সাথে দেখা করে কথা বলেন বিধায়ক । কৃষ্ক কল্যানীর অভিযোগ, বিজেপি করার অপরাধে তৃণমুল কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীরা সুজিতকে মারধর করে। এই ঘটনায় রায়গঞ্জ থানায় অভিযোগ জানানো হয়েছে। দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানানো হবে থানায়। অভিযোগ অস্বীকার করেছে স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব।

Related News

Leave a Reply

Back to top button