রায়গঞ্জ

পুলিশকে বোকা বানাতে কার্তুজ গিলে নিল যুবক, চাঞ্চল্য রায়গঞ্জে

পুলিশকে বোকা বানাতে কার্তুজ গিলে নিল যুবক, চাঞ্চল্য রায়গঞ্জে

Bengal Live রায়গঞ্জঃ পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে কার্তুজ খেয়ে রায়গঞ্জ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন হেমতাবাদের যুবক। ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে উত্তর দিনাজপুর জেলার হেমতাবাদ ব্লকের বারুইপুর গ্রামে।

সূত্রের খবর, রায়গঞ্জ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের গ্রুপ ডি কর্মী নূর ইসলামের বিরুদ্ধে বধু নির্যাতনের মামলা রুজু হয়েছিল। সেই মামলার তদন্ত করতেই বুধবার নূরের বাড়িতে হানা দেয় হেমতাবাদ থানার পুলিশ।

সেই সময় আচমকা পুলিশি হানায় হতভম্ব হয়ে কার্তুজ গিলে নেয় নূর৷ যদিও কার্তুজ গিলে নেওয়ার বিষয়টি নিয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি। পুলিশের বক্তব্য, মেডিক্যাল রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত কী খেয়েছে তা বলা সম্ভব হচ্ছে না। তবে তাকে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হিয়েছে।

যদিও রায়গঞ্জ সুপার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নূর ইসলাম নিজেই কার্তুজ গিলে নেওয়ার কথা স্বীকার করে। নূরের দাবী, কোথা থেকে এসেছে জানিনা। পুলিশ আচমকা চলে আসায় কিংকর্তব্যবিমুঢ় হয়ে কার্তুজ গিলে ফেলেছিলাম। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Tags

Leave a Reply

Back to top button
Close