ইসলামপুর

যারা বেইমানি করবে তাদের সঙ্গে খেলা হবে ভোটের পরে, ঘোষণা চোপড়ার তৃণমূল বিধায়কের

প্রকাশ্য সভা থেকে তৃণমূল বিধায়কের হুমকি। “যারাই বেইমানি করবে নির্বাচনের পর দেখা হবে।” জোর বিতর্ক উত্তর দিনাজপুরে।

 

Bengal Live রায়গঞ্জঃ “যারাই বেইমানি করবে, নির্বাচনের পর দেখা হবে।” প্রকাশ্য সভা থেকে হুঁশিয়ারির সুর চোপড়ার তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক হামিদুল রহমানের গলায়। বিধায়কের এমন বক্তব্য সামনে আসতেই জেলাজুড়ে শুরু হয়েছে জোর বিতর্ক। নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ জানাবে বলে জানিয়েছেন চোপড়ার বাম-কংগ্রেসের জোট নেতা পার্থ ঘোষ। গ্রেপ্তারের দাবিতে সরব হয়েছে বিজেপি।

মঙ্গলবার চোপড়া বিধানসভা কেন্দ্রের গলাগছ আলোরানি ময়দানে তৃণমূল কংগ্রেসের এক সভায় বক্তব্য রাখেন বিধায়ক হামিদুল রহমান। সভা মঞ্চে দাঁড়িয়ে হামিদুল রহমান বলেন,”মমতা ব্যানার্জীর উন্নয়ন প্রতিটি ঘরে ঘরে পৌঁছে গেছে। যারা লবন খান, তাঁরা বেইমানি করেন না। আর যারা বেইমানি করবেন ভোটের পরে তাদের সঙ্গে দেখা হবে।” প্রকাশ্যে ভোটারদের উদ্দেশ্যে এমন হুমকির সুরে কথা বলার পরেও অনুতপ্ত নন তিনি। সভা শেষে এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে হামিদুল রহমান বলেন, “যারা ভাল মানুষ তাঁরা বক্তব্যকে ভাল ভাবে নেবেন, আর খারাপ মানুষ খারাপ ভাবে নেবেন। ভোটের পরে তো দেখা হবেই। এত উন্নয়নের পরেও যদি কেউ বেইমানি করে তবে তাদের সঙ্গে ‘খেলা হবে’।”

স্থানীয় জোট নেতা পার্থ ঘোষের অভিযোগ, হামিদুল রহমান নিজের হার নিশ্চিত জেনেই ভোটারদের প্রকাশ্যে হুমকি দিচ্ছেন। এই বক্তব্যের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ জানাবেন তিনি। বিধায়কের এই বক্তব্যকে নিয়ে সরব হয়েছে বিজেপিও। উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপির সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী বলেন, ভয়ের বাতাবরণ তৈরি করছেন বিধায়ক। নির্বাচন ঘোষণা হওয়ার পর এমন বক্তব্য থেকে পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছে শান্তিপূর্ণ ভোট তিনি করতে দেবেন না। নির্বাচন কমিশনকে বলব, ভোটারদের এই ভাবে হুমকি দেওয়ার জন্য তাঁকে গ্রেপ্তার করা হোক।

Related News

Leave a Reply

Back to top button