পোর্টজিন

অর্নেশ ভট্টাচার্য্য-এর লেখা ভোট রঙ্গ

Bengal Live পোর্টজিনঃ পোর্টজিন কি? পোর্টজিন একটি অনলাইন ম্যাগাজিন। প্রতি সপ্তাহের রবিবার এটি বেঙ্গল লাইভের (bengallive.in) এর পোর্টজিন বিভাগ থেকে প্রকাশিত হয়।

bengal live portzine bangla golpo

 

ভোট প্রতাপ বাবু মফঃস্বলের বাসিন্দে এবং প্রবীণতম ব্যক্তি ৷ কাজেই ভোট দিতে যেতে অসুবিধা হয় তার ৷ কিন্তু প্রতিবার ভোটে ভুল করে নাম চলে আসে তার ৷ ভোট প্রতাপ বাবুর নিকট আত্মীয় ছিল কোনো এক দলের প্রার্থী তাই তাকেই ভোট প্রতাপ বাবুর মফঃস্বলের লোকেরা ভোট দেন কারণ সবাই জানেন তিনি ওনার খুব কাছের একজন ৷ ভোটে নাম আসার দরুন ভোট প্রতাপ বাবুকে ভোট দিতে যেতে হয় কিন্তু সমস্যা এটাই প্রত্যেকবার তিনি একই ভুল করেন, নিজের আত্মীয়কে ভোট দিতে গিয়ে ব্যালট পেপারে অনামী কাকে ভোট দিয়ে চলে আসেন ৷ ভোট প্রতাপ বাবুর বাড়ির লোকেরা বেজায় বিরক্ত হয় ৷ ছেলেরা বলে বাবা তুমি আর ভোট দিতে যেও না ৷ বৌমারা বলেন আপনি কেন যান ভোট দিতে, বারবার একটা ভোট নষ্ট করেন ৷ পাড়ার লোকেরা ভোট প্রতাপ বাবুর কাছের যে আত্মীয়কে নিজের ভাগ্নে, ছেলে বলে পরিচয় দিতে ভালোবাসে তারাও ঠাট্টা করে ৷ কিন্তু এবারে বিরোধী দলের লোকেরা ভোট প্রতাপ বাবুকে ধরেছেন যে যখন তুমি ওদের ভোট দিচ্ছ তখন আমাদেরকেও দিতে হবে ৷ ভোট প্রতাপ বাবু বলেন ঠিক আছে তাই হবে ৷ দিয়ে ভোট প্রতাপ বাবু এবারেও লেংচে লেংচে ভোট দিতে গেছেন ৷ বাড়ি এলে পরে লোকেরা তাকে শুধান কাকে ভোট দিলেন গো ভোট ভুল বাবু ৷ ভোট প্রতাপ বাবু উত্তর দেন কেন ওদের দিলাম, ওই দুটো পার্টি আমাকে বহুবার বলেছিল তাদের এবারে যেন ভোট দেওয়া হয় তাই আমি ওদের ভোটটা দিয়েছি ৷ ভোট প্রতাপ বাবুর মুখে প্রলাপ শুনে বাকি লোকেরা কটুক্তি করে ৷ সেটা শুনে ভোট প্রতাপ বাবুর ছেলে বলে তাহলে তো তোমার একটা ভোট নষ্ট হল গো বাবা ৷ তোমাকে যে বলেছিলাম ওই ছাপটাতে ভোটটা দিতে ৷ এ কি করলে বাবা তুমি! তোমার আর ভোট দিতে না যাওয়াই উচিত ৷ ভোট প্রতাপ বাবু গজগজ করে বলে ওঠেন না, না আমি যদ্দিন পারবেক তদ্দিন আমি যাবক ৷ আবার একটা বছর ঘুরে ভোট এসেছে ৷ আবার সবাই ভোট প্রতাপ বাবুকে প্রার্থীর ছবি দেখিয়ে, বাড়িতে যারা আত্মীয়কে ভোট দেবেন বলে এসেছিল সেই কাগজের ছবি দেখিয়ে, তার নাম, চিহ্নের ছবি সব বুঝিয়ে তারা ভোট প্রতাপ বাবুকে পুনরায় ভোট দিতে যেতে পাঠান ৷ যদিও ভোট প্রতাপ বাবুর বাড়ির লোকেরা জানে তিনি এবারেও ভুল করবেন ৷ তারা সেইজন্য ভোট প্রতাপ বাবুকে ভোট দিতে যাওয়ার আগে বলে তোমার যাওয়ার দরকার ছিল না, তোমার ভোটটা অন্য কেউ দিয়ে দিতো, অন্তত একটাও ঠিক ভোট পেতাম ৷ ভোট প্রতাপ বাবু তখন ওদের আশ্বাস দিয়ে বলেন তোরা তো আমার কথা বিশ্বাস করবি না কিন্তু আমি এবারে ঠিক ভোটই দেব ৷ তোদের এসে বলব রে, তোরা অত ভাবিস না ৷ অতঃপর ভোট প্রতাপ বাবু ভোট দিতে যান ৷ বাড়ির লোকেরা যে যার মতন মধ্যাহ্নভোজে ব্যস্ত ঠিক তখনই ভোট প্রতাপ বাবু বাড়িতে ফিরে আসেন ভোট দিয়ে ৷ বাড়ির লোকেরা তাকে জিজ্ঞেস করেন কি বাবা এবারেও ভুল করলে তো? ভোট প্রতাপ বাবু উত্তর দেন এই দেখ, এই দেখ বাপ তোরা তো কোনোবার আমাকে বিশ্বাস করিস না, এবারে আমি তোদের ভুল কিছু দেখাব না বলে পাঞ্জাবির পকেট থেকে ভোট প্রতাপ বাবু একটা কাগজ বার করে পরিবার লোকেদের দেখান ৷ এটা দেখ আমি ঠিকই দিয়েছি ৷ পরিবারের লোকেরা হায় হায় করে বলে ভোট প্রতাপ বাবুকে যদিও বা এবারে তুমি ঠিক লোককে ভোট দিলে কিন্তু ভোটের কাগজটা পকেটে গুঁজে নিয়ে চলে এলে, বাক্সে আর ফেললে না ৷ ভোট প্রতাপ বাবু মৃদুল স্বরে বলে ওঠেন যাহ্! গেলাম ৷

কীভাবে লেখা পাঠাবেন?
নীচে উল্লিখিত হোয়াটসঅ্যাপ নাম্বার কিংবা ইমেল আইডিতে লেখা পাঠাতে পারবেন।
হোয়াটসঅ্যাপ নাম্বার~ 9635459953
ইমেল আইডি~ bengalliveportzine@gmail.com
লেখার সঙ্গে নিজের নাম, ঠিকানা, মোবাইল নম্বর এবং একটি ছবি পাঠানো আবশ্যক।
ভ্রমণ কাহিনীর সঙ্গে নিজের তোলা দুটো ছবি পাঠাতে হবে।

Related News

Leave a Reply

Back to top button