রায়গঞ্জ

রায়গঞ্জে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ, কড়া লকডাউন চান মোহিত সেনগুপ্ত

Join our WhatsApp group

রায়গঞ্জে করোনা সংক্রমণ ক্রমশ বেড়েই চলেছে। তাই শহরে ফের ১৪ দিনের সম্পূর্ণ লকডাউন জারি করার আবেদন জানিয়ে জেলা শাসকের কাছে চিঠি পাঠালেন রায়গঞ্জের বিধায়ক মোহিত সেনগুপ্ত।

Bengal Live রায়গঞ্জঃ রায়গঞ্জ পুর এলাকায় ১৪ দিনের কড়া লকডাউন জারি করার আবেদন জানালেন রায়গঞ্জের বিধায়ক তথা প্রাক্তন পুরপতি মোহিত সেনগুপ্ত৷ মঙ্গলবার উত্তর দিনাজপুর জেলা শাসক অরবিন্দ কুমার মিনার কাছে লিখিত ভাবে করোনা মোকাবিলায় শহরজুড়ে ১৪ দিনের সম্পূর্ণ লকডাউন জারি করার আবেদন জানান তিনি। ই-মেইল ও হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে জেলা শাসককে ওই চিঠি পাঠিয়েছেন বিধায়ক।

ADVERTISEMENT

জেলা শাসককে পাঠানো চিঠিতে মোহিত বাবু বলেন, ” করোনা অতিমারী আবহে আন্-লকডাউন-১ ও ২ পর্যায়ে আমরা লক্ষ্য করছি যে রায়গঞ্জ শহর ও শহর সংলগ্ন গ্ৰাম গুলিতে করোনা সংক্রমণ ক্রমশ বেড়েই চলেছে। এছাড়া বিশেষভাবে, আমরা গভীর আশঙ্কা ও আতঙ্কের সঙ্গে লক্ষ্য করছি যে গত ১৫ দিন ধরে রায়গঞ্জ পুর এলাকায় প্রতিদিন কোনও না কোনও পাড়ায় পুর নাগরিকরা করোনা ভাইরাসে সংক্রামিত হচ্ছেন। গত একমাস আগে সুদর্শনপুর এলাকা থেকে শুরু হয়ে এদিন পর্যন্ত কাঞ্চনপল্লী, দেবীনগর, বীরনগর, কলেজপাড়া, লাইনবাজার, মোহনবাটি বাজার, নেতাজীপল্লী, বিধাননগর সহ বিভিন্ন এলাকায় প্রতিদিন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। আমরা মনে করি রায়গঞ্জ পুর এলাকায় করোনা পরিস্থিতি অত্যন্ত ভয়াবহ আকার(গোষ্ঠী সংক্রমণ) নিতে চলেছে। এমতাবস্থায়, অবিলম্বে রায়গঞ্জ পুর এলাকায় আগামী ১৪ দিনের জন্য সম্পূর্ণ লক্ ডাউন জারি করার বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে ভেবে দেখতে অনুরোধ করছি। নচেৎ, আগামী দিনে গোষ্ঠী সংক্রমণ অবশ্যম্ভাবী হতে পারে।

এই বিষয়ে কংগ্রেসের উত্তর দিনাজপুর জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক পবিত্র চন্দ বলেন, “ডিএম সাহেব আমাদের বিধায়কের ফোন ধরেন না বা আমরা সময় চাইলে সময় দেন না। সেই কারণে ই-মেইল ও হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে জেলাশাসককে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন বিধায়ক মোহিত সেনগুপ্ত। রায়গঞ্জ সহ সংলগ্ন গ্রামগুলিতে যেভাবে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে তাতে পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার নিতে চলেছে বলেই আশঙ্কা। সেই আশঙ্কা থেকেই আমাদের বিধায়ক মনে করছেন, সংক্রমণ রোধে রায়গঞ্জে পুনরায় ১৪ দিনের কড়া লকডাউন ঘোষণা করা অত্যন্ত জরুরি। প্রয়োজনে সর্বদলীয় মিটিং ডেকে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হোক।

Tags

Related News

Leave a Reply

Back to top button
Close