রাজ্য

মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া সব সরকারি পদ ছাড়লেন নান্টু পাল, এবার কি তবে গেরুয়া পথে ?

এখনও তিনি নির্দল। তবে পরবর্তীতে কোনও দলে যোগ দেবেন কিনা এখনও ঠিক নেই। চ্যালেঞ্জ নিয়েই সরকারি পদ থেকে ইস্তফা নান্টু পালের।

 

Bengal Live শিলিগুড়িঃ দল ছাড়ার পর এবার সরকারি পদ থেকেও ইস্তফা দিলেন শিলিগুড়ি-জলপাইগুড়ি উন্নয়ন পরিষদের সহ সভাপতি নান্টু পাল। মুখ্যমন্ত্রীর উত্তরবঙ্গে থাকাকালীনই দল থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন নান্টু পাল৷ মূলত তাঁকে দল প্রার্থী না করাতেই ক্ষুব্ধ দীর্ঘদিনের এই রাজনীতিবিদ।

মঙ্গলবার এসজেডিএ-এর দায়িত্ব থেকে ইস্তফা দেন নান্টু পাল। দপ্তর থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, সরকারি যেই পদ আমাকে সরকার দিয়েছিল আজ সেখান থেকে ইস্তফা দিয়েছি। যেই পদে আমি নির্বাচিত হয়ে এসেছি সেগুলো থেকে ইস্তফা দিচ্ছি না। দিল্লি, রাজ্যের অনেক বিজেপি নেতার সাথে আমার সম্পর্ক ভালো। অনেকের সাথেই অনেক বিষয় নিয়ে কথা হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত আমি নির্দল হয়েই কথা বলছি। অন্য কোনও দলে যোগ দিলে জানাবো৷”

মমতার সফরের মাঝেই উত্তরে ক্ষোভ তৃণমূলের, শিলিগুড়িতে নান্টু পাল নির্দল প্রার্থী

এদিন নান্টু পাল আরও বলেন, ৪০ বছরের রাজনীতিতে শিলিগুড়ির মানুষ আমাকে কোনও দিন প্রত্যাখ্যান করেনি। কাউন্সিলর থেকে বোড়ো চেয়ারম্যান, শিলিগুড়ি পুর কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান, ডেপুটি মেয়র হয়েছি। শিলিগুড়ির উন্নয়নের জন্য চেষ্টা করে যাব।

প্রসঙ্গত, তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই রাজ্যজুড়ে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে দলীয় নেতৃত্বের মধ্যে। অনেক জায়গাতেই পথ অবরোধ করে বিক্ষোভে সামিল হয়েছেন নেতৃত্বের একাংশ। প্রার্থী হয়েও দলবদলের নজির রয়েছে এবছর। তেমনই শিলিগুড়িতেও ওমপ্রকাশ মিশ্রের নাম প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা হতেই বহিরাগত প্রার্থী নিয়ে সমস্যা দেখা দেয় দলের অন্দরে।

Related News

Leave a Reply

Back to top button