রাজ্য

শিবের মেলায় ফিরে এল পুতুল নাচ, নাচের দৃশ্য মুঠোফোনে ক্যামেরাবন্দী নেটিজেনদের

সারা বিশ্বে করোনা অতিমারীর কারণে এতদিন স্থগিতাদেশ ছিল মিলনমেলা সহ যেকোনও উৎসব ঘিরে জনসমাগমে। নিষেধাজ্ঞা উঠতেই ফিরে এল পুতুল নাচের ইতিকথা।

 

 

Bengal Live আলিপুরদুয়াঃঃ  স্মার্টফোনের দৌরাত্ম্যে হারিয়ে যেতে বসেছে ঐতিহ্যবাহী পুতুল নাচ। একসময় বাদ্যযন্ত্রের সাথে তাল মিলিয়ে সুতো দিয়ে হাতের নৈপুণ্যে পুতুলের নাচ দেখে মুগ্ধ হতো মানুষ। বিশেষ করে শিশুদের বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম ছিল পুতুল নাচ। কিন্তু এখন সকলেই নেট দুনিয়ার মানুষ। হাতে হাতে স্মার্টফোন। এক ক্লিকেই বেরিয়ে আসছে মনোরঞ্জনের নানারকম হাতছানি।

তবে আলিপুরদুয়ারের জটেশ্বরে দেখা গেল এর উল্টো চিত্র। স্মার্টফোনের আসক্তি ছেড়ে মেলায় আসা যুবক-যুবতীদের ভিড়ের ঢল নামে জটেশ্বরের শিব চতুর্দশী মেলায় পুতুল নাচের আসরে। পুতুল নাচের শো দেখে আহ্লাদিত আট থেকে আশি। অতি উৎসাহী অনেকে আবার পুতুল নাচের শো মোবাইলে ক্যামেরাবন্দীও করছেন।

এক সময়ে শিবমেলা, পৌষমেলা কিংবা দুর্গাপুজো উপলক্ষে গ্রামে গ্রামে পুতুল নাচের শো হতো ঘটা করে। কিন্তু পৃথিবী ইন্টারনেটের যুগে পৌঁছতেই ক্রমশ হারিয়ে যেতে থাকে সেই পুতুল নাচের আসর। ঘরে বসে স্মার্টফোনেই নাচ-গান সহ নানা উৎসব ও বিনোদন উপভোগ করে মানুষ। যার ফলে ব্যবসা গোটাতে হয়েছে অনেক পুতুল নাচের দলকে। অনেকে অবশ্য ব্যবসাকে টিকিয়ে রাখতে পুতুল নাচের সঙ্গে সমসাময়িক বিষয়বস্তুকেও জুড়ে দিয়েছেন।

কোচবিহার জেলার বৈরাগীরহাট থেকে পুতুল নাচের দল হাজির হয়েছে জটেশ্বরের শিব মেলায়। সেখানে প্রতিদিন মেলা শুরুর পরেই দু’টি করে শো চলছে। পুতুল নাচের মাধ্যমে ক্ষুদিরামের ফাঁসি, বেহুলা-লক্ষ্মীন্দর, রূপবান সহ বিভিন্ন পৌরাণিক পালা তুলে ধরছেন শিল্পীরা। এর মাধ্যমে বিনোদনের পাশাপাশি সমাজ সচেতনতা, মেয়েদের অল্প বয়সে বিয়ে না দেওয়া, প্রত্যেক শিশুকে স্কুলে পাঠানো, পণ না নেওয়া সহ একাধিক সমাজ সচেতনতার বার্তাও পুতুল নাচের মাধ্যমে তুলে ধরছেন উদ্যোক্তারা।

Related News

Leave a Reply

Back to top button