রাজ্য

আংশিক লকডাউনের প্রভাব উত্তরবঙ্গ জুড়েই

শুক্রবার রাত থেকেই রাজ্য জুড়ে জারি হয়েছে আংশিক লকডাউন। নির্ধারিত করে দেওয়া হয়েছে বাজারের সময়। নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে যে কোনও রকমের জমায়েতে।

 

Bengal Live ডেস্কঃ করোনা মোকাবিলায় নবান্নের নির্দেশিকা অনুযায়ী শনিবার সকাল থেকে রাজ্য জুড়ে জারি আংশিক লকডাউন। সকাল ৭ টা থেকে ১০ টা এবং বিকেল ৩ টা থেকে ৫ টা পর্যন্ত খোলা থাকবে বাজার হাট। নির্ধারিত সময়ের বাইরে দোকান পাট খোলা রাখার উপর সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা প্রশাসনের।

এদিকে শনিবার সকাল থেকে আলিপুরদুয়ার জেলা জুড়ে চলছে ঝড়ো হাওয়া ও বৃষ্টি । তারই মধ‍্যে আংশিক লকডাউনে তেমন ভাবে ভীড় দেখা যায় নি আলিপুরদুয়ার জেলার বিভিন্ন বাজারে। কিছু কিছু এলাকায় দোকান গুলিতে ক্রেতা ও বিক্রেতারা প্রায় সকলেই মাস্ক ব‍্যবহার করছেন। তবে কিছু কিছু মানুষকে এখনও মাস্ক ব্যবহার করতে দেখা যায় নি। অন্যদিকে প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে  নির্দিষ্ট সময়ের বাইরে সবজি বাজার খোলা রাখার অভিযোগ ওঠে। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে তেমন তৎপরতা লক্ষ্য করা যায়নি বলেও উঠেছে অভিযোগ।

মালদায় বিজেপি প্রার্থীকে গুলির ঘটনায় গ্রেপ্তার দলীয় নেতা

একই ভাবে মালদা জেলাতেও শনিবার সকাল থেকে চলছে আংশিক লকডাউন। মাস্ক না থাকলে ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করা হচ্ছেনা সামগ্রী। এমনই সচেতনতার চিত্র ধরা পরলো মালদার রেগুলেটেড মার্কেটের ফল বাজারে।

মালদার রেগুলেটেড মার্কেট এর ফল ব্যবসায়ী সমিতির সহ-সভাপতি গৌতম সাহা জানান, লকডাউন এর দ্বিতীয় ঢেউয়ে আংশিক লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মাস্ক পড়ে না আসলে ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করা হবে না ফল।

মালদা মার্চেন্ট’স চেম্বার অফ কমার্সের সম্পাদক জয়ন্ত কুন্ডু জানিয়েছেন, ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কোনো আলোচনা না করে লকডাউন এর সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। লকডাউন এর সময়সীমা পরিবর্তন করার দাবি রাখবেন প্রশাসনের কাছে বলে জানান তিনি।

আগামীকাল গণনা, এখনও মেলেনি পোস্টাল ব্যালট,ক্ষোভ তৃণমূল শিক্ষক সংগঠনের

অন্যদিকে উত্তর দিনাজপুর জেলায় এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৮৭০ জন। এরমধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৮৫ জনের। তবে উল্লেখ্যযোগ্য ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে সুস্থতার হার। জেলায় এখনও পর্যন্ত সুস্থতার সংখ্যাটা ৮০৬০ জন। এই পরিস্থিতিতে উত্তর দিনাজপুরেও সমান ভাবে জারি রয়েছে আংশিক লকডাউন। গতকাল সন্ধ্যা থেকেই উত্তর দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন থানা থেকে শহরগুলিতে মাইকিং করা হয়েছে। শনিবার সকাল থেকেই উত্তর দিনাজপুর জেলা সদর রায়গঞ্জ শহরে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখা হয়েছে শপিংমল, সিনেমা হল, রেস্তোরাঁ, বার, জিম,স্পা সহ সুইমিংপুল। প্রশাসনিক নির্দেশ মেনে সকালে তিন ঘন্টার জন্য বাজার চললেও পরে তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। রাস্তাঘাটেও সতর্কভাবে মাস্ক ব্যবহার করেই চলাফেরা করেছেন মানুষজন।

Related News

Leave a Reply

Back to top button